পারটেক্স গ্রুপ পরিবারের ১০ সদস্যের ব্যাংক হিসাব তলব

বুধবার, জুন ২২, ২০২২

ঢাকা : পারটেক্স গ্রুপ পরিবারের পাঁচ মালিক ও তাদের স্ত্রীদের ব্যাংক হিসাবের লেনদেন বিবরণী চেয়েছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)।

মঙ্গলবার (২১ জুন) এনবিআরের সেন্ট্রাল ইন্টেলিজেন্স সেল-সিআইসি এ বিষয়ে দেশের সব ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের কাছে চিঠি পাঠিযেছে। চিঠিতে লেনদেন বিবরণীসহ নির্দেশিত তথ্য পাঠাতে ৭ কর্মদিবস সময় বেঁধে দেওয়া হয়েছে।

সিআইসির চিঠিতে আলোচিত ব্যক্তিদের সঞ্চয়ী হিসাব, চলতি হিসাব,​ ঋণের তথ্য এবং বৈদেশিক মুদ্রা অ্যাকাউন্টের বিস্তারিত তথ্য পাঠানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া ব্যাংকগুলোকে ক্রেডিট কার্ড, লকার বা ভল্ট, সঞ্চয় শংসাপত্র বা অন্য কোনো সঞ্চয়পত্র এবং বিনিয়োগ প্রকল্প সম্পর্কিত তথ্য দিতে বলেছে।

ব্যাংকগুলোকে ১ জুলাই ২০১৫ সাল থেকে আপডেট অ্যাকাউন্ট স্টেটমেন্ট, লোন এবং জামানতের বিস্তারিত তথ্য প্রদান করতে বলা হয়েছে। এই সময়ের মধ্যে যদি কোনো অ্যাকাউন্ট বন্ধ হয়ে গিয়ে থাকে, তাহলে ওই ব্যাংক হিসাবেরও তথ্য দিতে হবে।

চিঠিতে, কর কর্তৃপক্ষ ব্যাংকগুলোকে পারটেক্স গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা এম এ হাসেমের ৫ ছেলে আজিজ আল কায়সার, আজিজ আল মাহমুদ, আজিজ আল মাসুদ, শওকত আজিজ রাসেল ও রুবেল আজিজ এবং তাদের স্ত্রীদের অ্যাকাউন্টের বিস্তারিত বিবরণ দিতে বলেছে।

পারটেক্স গ্রুপ অবশ্য বর্তমানে তিনটি ভাগে বিভক্ত। গ্রুপটির প্রতিষ্ঠাতা মরহুম এমএ হাসেম তাঁর জীবদ্দশাতেই সন্তানদের মধ্যে ভাগ করে দিয়ে যান। এর প্রেক্ষিতে পারটেক্স গ্রুপ ভেঙ্গে পারটেক্স স্টার ও আম্বার নামে দুটি আলাদা গ্রুপের জন্ম হয়। আলোচিত পাঁচ ভাই এই তিন গ্রুপ পরিচালনা করছেন।