ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে শিক্ষক গ্রেপ্তার

শুক্রবার, মে ১৩, ২০২২

বগুড়া: বগুড়ার ধুনটে দশম শ্রেণির এক স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে মুরাদুজ্জামান মুকুল নামে এক প্রভাষককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়ার পর বৃহস্পতিবার রাতে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃত মুকুল ধুনটের জালশুকা হাবিবুর রহমান কলেজের ইসলামের ইতিহাস বিভাগের প্রভাষক। তিনি গত কয়েক মাস যাবৎ ঐ ছাত্রীকে বিভিন্ন সময় ভয়ভীতি দেখিয়ে ধর্ষণ করে আসছিলেন।

মুকুলের বাড়ি উপজেলার এলাঙ্গী ইউনিয়নের শৈলমারী গ্রামে।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, গ্রেপ্তার মুকুল ধুনট পৌর এলাকার দক্ষিণ অফিসারপাড়া এলাকার একটি বাসার নিচতলায় ভাড়া থাকতেন। ঐ বাড়ির মালিকের দুই বছর বয়সী ছেলে খেলাধুলা করতে প্রায়ই মুরাদুজ্জামানের ফ্ল্যাটে যাওয়া-আসা করতো। সেই সুবাদে বাড়ির মালিকের বড় মেয়ে দশম শ্রেণির ছাত্রীও সেখানে যেত।

এদিকে মুকুলের স্ত্রীও স্কুলের শিক্ষিকা হওয়ায় তিনি বাড়িতে থাকতেন না। এই সুযোগে মুকুল কয়েক মাস আগে মেয়েটিকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করেন। সে সময় ধর্ষণের ভিডিও চিত্র ধারণ করে রাখেন। এরপর ওই ভিডিওটি ফেসবুকে ভাইরাল করে দেওয়ার হুমকি দিয়ে একাধিকবার ধর্ষণ করেন মুকুল।

সর্বশেষ বৃহস্পতিবারও মেয়েটিকে ধর্ষণের চেষ্টা সে চিৎকার দিলে তার খালা সেখানে উপস্থিত হলে মুকুল কৌশলে পালিয়ে যান। এরপর মেয়েটি তার পরিবারের কাছে সম্পূর্ণ ঘটনা খুলে বললে তার মা বাদী হয়ে বৃহস্পতিবার রাতে ধুনট থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। পরে পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে।

ধুনট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কৃপা সিন্ধু বালা ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, স্কুলছাত্রীর মা বাদী হয়ে থানায় লিখিত অভিযোগ দিলে মামলার আসামিকে আটক করা হয়।

এরপর অভিযোগটি মামলা হিসেবে নথিভূক্ত করে তাকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে। আগামীকাল তাকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হবে।