কেরালায় অভিজাত মহলে স্ত্রী বদল করে যৌনাচার

মঙ্গলবার, জানুয়ারি ১১, ২০২২

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : সমাজের ধনী এবং অভিজাত মহলে পুরুষ ও স্ত্রী পরিবর্তনের প্রবণতা বেড়েছে। পুরুষ বা স্ত্রী সঙ্গী বদল করে যৌনতার এক চক্রের সন্ধান পেল কেরালা পুলিশ। এই চক্রের সঙ্গে জড়িত সন্দেহে ৭ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

ভারতের কেরালাজুড়ে এই চক্র ছড়িয়ে পড়েছে বলে পুলিশের আশঙ্কা। প্রাথমিক তদন্তে অনুমান, অন্তত ১ হাজার নারী-পুরুষ এই চক্রে জড়িত।

কেরালার কারুকাচল থানায় এক নারী তার স্বামীর বিরুদ্ধে অভিযোগ জানাতে এলে পুরো ঘটনা প্রকাশ্যে আসে। ওই নারীর অভিযোগ, তার স্বামী তাকে জোর করে অন্য পুরুষদের সঙ্গে সহবাসে বাধ্য করতে চাইছিলেন।

পুলিশ জানিয়েছে, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহার করে একদল মানুষ বিভিন্ন গ্রুপের মাধ্যমে নারী-পুরুষদের সঙ্গে বন্ধু পাতিয়ে অনেককে এই কাজে প্ররোচিত করছে। যৌনজীবনের একঘেয়েমি কাটাতে এই ধরনের প্রস্তাবে অনেকের কাছে জনপ্রিয় হচ্ছে বলে তা দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে।

চেঙ্গাচেরির ডেপুটি পুলিশ সুপার আর শ্রীকুমার জানান, অভিযুক্তেরা অধিকাংশই আলাপুঝা, কোট্টায়াম, এর্নাকুলামের মতো জেলার বাসিন্দা। অভিযোগকারী নারীর স্বামী ছাড়াও আরও ৬ জনকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে।

পুলিশ জানিয়েছে, নারী বিমিময় এই গ্রুপে কারা কারা জড়িত রয়েছে, সেই অনুসন্ধান চলছে। এর আগে ২০১৯ সালে এক গৃহবধূ আদালতে এ জাতীয় নেটওয়ার্কের অভিযোগ করেছিলেন। মহিলার অভিযোগ ছিল শেয়ার চ্যাটের সাহায্য নিয়ে তাকে যৌনতার জন্য অন্য পুরুষের কাছে পাঠান হয়েছিল।

এই চক্রের সোশ্যাল মিডিয়া গ্রুপে হাজার জনের বেশি সদস্য রয়েছে বলে মনে করছে পুলিশ। তবে পুলিশ বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়ায় এই চক্রের গ্রুপে ৫ হাজারের বেশি দম্পতিকে যুক্ত থাকতে দেখেছে। ২০১৮ সাল থেকে এই চক্রটি সক্রিয় রয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। সোশ্যাল মিডিয়ায় বিভিন্ন গ্রুপের সদস্যরা তাদের স্ত্রী অদল-বদলের জন্য মোটা টাকা নিত এবং তারা প্রত্যেকেই সমাজের অভিজাত শ্রেণির মানুষ।