ওমিক্রন থেকে সতর্ক থাকতে খান এই পাঁচ খাবার

শনিবার, জানুয়ারি ৮, ২০২২

স্বাস্থ্য ডেস্ক : করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট থেকে নিজেকে সুরক্ষিত রাখতে ও শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে খেতে হবে স্বাস্থ্যকর ও পুষ্টিকর খাবার। এই পাঁচটি খাবার হতে পারে আপনার জন্য খুবই সহায়ক।

বিশ্বজুড়ে দ্রুত ছড়িয়ে পড়েছে করোনাভাইরাসের নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রন। বাংলাদেশেও দ্রুত বৃদ্ধি পাচ্ছে নতুন করে করোনার সংক্রমণ।

শীতকালে এমনিতেই মানুষ ভাজাপোড়া খাবার বেশি পছন্দ করে। তবে যে হারে করোনা ছড়াচ্ছে তাতে সবচেয়ে ভালো হয় এসব ভাজাপোড়া জাতীয় খাবার পরিহার করা।

করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট থেকে নিজেকে সুরক্ষিত রাখতে ও শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে তাই খেতে হবে স্বাস্থ্যকর ও পুষ্টিকর খাবার। এই পাঁচটি খাবার হতে পারে আপনার জন্য খুবই সহায়ক।

কলা:

কলায় রয়েছে প্রচুর পরিমাণে কার্বোহাইড্রেট ও পটাশিয়াম। কলা খেলে শরীরের পেশি ও স্নায়ু সচল রাখতে সহায়তা করে। সঙ্গে বেড়ে যায় শরীরের কার্যকারিতা। প্রতিদিন ব্যায়াম করার অন্তত ৩০ মিনিট আগে খেতে পারেন একটি করে কলা। দেখবেন আপনার রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বেড়েছে।

মিষ্টি আলু:

কার্বোহাইড্রেট, অ্যান্টি-অক্সিড্যান্ট, ভিটামিন এ এবং ভিটামিন সি-সমৃদ্ধ খাবার মিষ্টি আলু। এটি শরীরের কোষে পুষ্টি ও শক্তি জোগান দেয়। সাধারণ শরীরচর্চার শেষে প্রতিদিন সিদ্ধ মিষ্টি আলু খেলে অনেক উপকার পেতে পারেন।

ফলের স্মুদি:

সুস্বাদু ও পুষ্টিগুণে ভরপুর ফলের স্মুদি, সঙ্গে নিতে পারেন অল্প পরিমাণে গ্রিক দই। এই দইয়ে থাকে প্রচুর পরিমাণে কার্বোহাইড্রেট ও প্রোটিন। ফল ও দইয়ের যৌথ সংমিশ্রণ এমনিতেই শরীর সুস্থ রাখায় কাজে দেবে।

পিনাট বাটার:

শরীরের কার্যক্ষমতা বৃদ্ধি করতে অন্যতম সহায়ক হতে পারে ভরপুর প্রোটিন ও ফ্যাটসমৃদ্ধ পিনাট বাটার। পাউরুটি অথবা বিভিন্ন শস্য দিয়ে তৈরি আটার রুটি দিয়ে অনায়াসে খেতে পারেন পিনাট বাটার। দেখবেন আপনার শরীর সুস্থ থাকবে এবং আপনি হয়ে উঠবেন স্বাস্থ্যবান।

বিটের রস:

শরীরচর্চার আগে আপনাকে ভেতর থেকে শক্তি জোগাবে এক গ্লাস বিটের রস। এ ছাড়া পেশিতে পর্যাপ্ত অক্সিজেন পৌঁছে দিয়ে পুষ্টি জোগাতেও কাজ করবে এই রস। তাই এটিও হতে পারে আপনার শক্তির রসদ।