সপ্তাহ শেষে কত আয় করলো ‘মিশন মঙ্গল’?

বৃহস্পতিবার, আগস্ট ২২, ২০১৯

বিনোদন ডেস্ক : ২০১৩ সালের নভেম্বরে উৎক্ষেপিত হয় বহু প্রতীক্ষিত মঙ্গলযান। তার এক বছরেরও কম সময়ের মধ্যে পাঁচটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ যন্ত্র বহনকারী হালকা ওজনের এই স্যাটেলাইট মঙ্গলগ্রহের কক্ষপথে প্রবেশ করে। সৃষ্টি হয় ইতিহাস।

ভারতই প্রথম দেশ, যারা প্রথমবারের চেষ্টাতেই মঙ্গলগ্রহে মহাকাশযান পাঠাতে পেরেছে। তাও আবার মহাকাশ গবেষণায় তথাকথিত রথী-মহারথী আমেরিকা, রাশিয়া এবং চিনের তুলনায় অনেকগুণ কম খরচে। নিশ্চিতভাবেই এতে বৃদ্ধি পেয়েছে ভারতের রাষ্ট্রীয় সম্মান, এবং সারা দুনিয়া জেনেছে বেঙ্গালুরুর ইন্ডিয়ান স্পেস রিসার্চ অর্গানাইজেশন বা ইসরো-র বিজ্ঞানীদের আশ্চর্য দক্ষতা এবং উদ্ভাবনী শক্তির কথা।

ভারতের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ইসরোর প্রথম পদক্ষেপেই সফল ‘মঙ্গল অভিযান’র কাহিনী পর্দায় নিয়ে আসছে অক্ষয় কুমার, বিদ্যা বালান, তাপসী পন্নু, সোনাক্ষী সিনহার আগামী ছবি ‘মিশন মঙ্গল’। জগন শক্তি পরিচালিত এই ছবির চিত্রনাট্যকার ও ক্রিয়েটিভ ডিরেক্টর আর বাল্কি।

১৫ অগাস্ট প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেয়েছে ছবিটি। প্রথমদিনে সিনেমাটি বক্স অফিসে আয় করেছে ২৯.১৬ কোটি রুপি। আর মাত্র পাঁচ দিনে ছবির আয় ছাড়িয়েছে ১০০ কোটি রুপি। এরইমধ্যে সফলতার সাথে প্রথম সপ্তাহ অতিক্রম করেছে ছবিটি। সপ্তাহ শেষে কত আয় করলো সিনেমাটি? সপ্তাহ শেষে সিনেমাটি আয় করেছে ১২১.২৩ কোটি রুপি (শুধুমাত্র ভারতে)। বৃহস্পতিবার সিনেমা বাণিজ্য বিশ্লেষক তারান আদার্শ এক টুইট বার্তায় এই তথ্য জানান।

‘মিশন মঙ্গল’ তৈরিতে সর্বমোট খরচ হয়েছে ১০০ কোটি রুপি। মুক্তির প্রথম দিনেই ছবিটি আয় করেছে ২৮.৫ কোটি রুপি। যা অনুমানের চেয়ে বেশী ছিল। ভারতের মধ্যে ৩১০০ প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেয়েছে ছবিটি। দৈনিক যার ১০ হাজার ৫০০ শো চলছে। হাউজফুল হচ্ছে বেশিরভাগ শো।