রাজধানীতে নারী চোর তানিয়াসহ গ্রেপ্তার ৪ জন

শুক্রবার, মে ৩১, ২০১৯

ঢাকা: তানিয়া আক্তার তানি। ৩২ বছর বয়সী এক নারী। দেখা মিলবে অভিজাত পাঁচ তারকা হোটেলের লেট নাইট পার্টিতে। তাকে সম্ভ্রান্ত মনে হলেও পেশায় একজন চোর।
নারী প্রতারক তানিয়া আক্তার উচ্চবিত্ত পরিবারের সদস্যদের টার্গেট করে অভিনব কায়দায় বাসায় ঢুকে নিয়ে যায় সবকিছু। সম্প্রতি তানিয়াসহ তার চার সহযোগীকে গ্রেপ্তার করেছে গোয়েন্দা পুলিশ। রাজধানীর অভিজাত হোটেলের বেশির ভাগ লেটনাইট পার্টিতেই দেখা যেতো ৩২ বছর বয়সী এই নারীর। নানা কৌশলে তিনি সখ্যতা গড়ে তুলতেন উচ্চবিত্তদের সাথে। এরপর দেখা সাক্ষাৎ। সুযোগ বুঝে বাসায় গিয়ে টাকা-পয়সা হাতিয়ে নেয়া।
প্রতারণার শিকার এই নারী জানালেন, তার ভাইয়ের বন্ধুর পরিচয়ে বাসায় ঢোকেন তানিয়া। কিছু বুঝে ওঠার আগেই হাতিয়ে নেন স্বর্ণ ও টাকা পয়সা। একই অবস্থা এই ব্যক্তিরও। প্রতারণার কবলে পড়েছেন তিনিও।
বিভিন্ন বাসা থেকে চুরি করা মূল্যবান স্বর্ণ তানিয়া বিক্রি করতেন রাজধানীর মাসকাট প্লাজার একটি স্বর্ণের দোকানে। গোয়েন্দা পুলিশের অভিযানে ধরা পরে চোরাই স্বর্ণের ক্রেতা ও তানিয়ার সহযোগী রায়হান।
পরে উত্তরার একটি বাসায় অভিযান চালিয়ে গ্রেপ্তার করা হয় তানিয়াসহ ৫ জনকে। এ সময় তার থেকে জব্দ করা হয় চুরি করা টাকা, স্বর্ণ ও মূল্যবান জিনিস।
জানা গেছে, রাজধানীর বিভিন্ন থানায় ১৫-২০টি মামলা আছে এ নারীর বিরুদ্ধে। আর অভিযোগ আছে এছাড়া ৩০টির বেশি।
গ্রেপ্তারের পর তানিয়া ভয়াবহ সব প্রতারণার কথা স্বীকার করেছেন। জানান, কীভাবে তিনি উচ্চবিত্ত পরিবারের সন্তানদের ফাঁদে ফেলতেন। গোয়েন্দা পুলিশ বলছে, ঈদ সামনে রেখে তানিয়া গত এক মাসে প্রায় ১২টি বাসায় চুরি করেছেন।
তবে তিনি সেসব বাসায়ই চুরি করতেন যাদের কোনো আত্মীয়ের সাথে তানিয়ার পরিচিতি থাকতো।
এর আগেও তিনবার গ্রেপ্তার হয়েছেন তানিয়া। কিন্তু বারবারই জামিনে বেরিয়ে গেছেন।