‘এটা কি আইসিসি দেখেনি?’

রবিবার, মার্চ ১০, ২০১৯

স্পোর্টস ডেস্ক : অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজের তৃতীয় ওয়ানডেতে ‘আর্মি ক্যাপ’ পরে মাঠে নেমেছিলেন বিরাট কোহলিরা। এমন কাণ্ডে ভারতীয় ক্রিকেটের সমালোচনায় মুখর ক্রিকেটবোদ্ধাদের একাংশ।

শাস্তির দাবিও জানাচ্ছে। এই তালিকায় যোগ হওয়া পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কোরেশী বলন, এহেন কাণ্ড কি আইসিসি দেখেনি?

কাশ্মীরের পুলওয়ামায় সন্ত্রাসী হামলায় নিহত দেশটির আধা সামরিক বাহিনীর সদস্যদের স্মরণেই এমন সিদ্ধান্ত নেয় ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড।

‘আর্মি ক্যাপ’ পরার আরো একটি উদ্দেশ্য ছিল কোহলিদের। আর তা হলো জাতীয় প্রতিরোধ ফান্ডের জন্য অনুদান দিতে মানুষকে অনুপ্রাণিত করা। এই ফান্ডের মাধ্যমে নিহতদের পরিবারের পাশে দাঁড়ানো ও তাদের সন্তানদের পড়ালেখার দায়িত্ব নেওয়ার ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

তাদের এই নজির স্থাপন ভালো চোখে দেখেনি না পাকিস্তান। ভারতকে নিয়ে সমালোচনার সূত্রপাত ঘটিয়েছেন দেশটির তথ্যমন্ত্রী ফাওয়াদ চৌধুরী ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কোরেশী।

দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘সারা পৃথিবী দেখেছে নিজেদের টুপি না পরে ভারতীয় ক্রিকেট দল সেনার টুপি পরেছিল। আইসিসি কি এটা দেখেনি? আমরা মনে করি পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি) নোটিশ দেওয়ার আগেই আইসিসির উচিত এ নিয়ে পদক্ষেপ নেওয়া।’

আর্মি টুপি পরে মাঠে নামার মধ্যে রীতিমত রাজনীতির গন্ধ খুঁজে পেয়েছেন ফাওয়াদ চৌধুরী । তার মতে, ক্রিকেট মাঠে রাজনীতি করার চেষ্টা করেছে ভারতীয় দল। যার জেরে ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিলের (আইসিসি) কাছে নালিশ জানানোর আর্জিও জানিয়েছেন তিনি।

ফাওয়াদ চৌধুরী ভাষ্য, ‘ফৌজি টুপি পরে ক্রিকেটের সঙ্গে রাজনীতিকে জড়িয়ে দিচ্ছে ভারত। ক্রিকেটকে জেনটেলম্যানস গেম বলা হলেও ফৌজি টুপি পরে মাঠে রাজনীতিতে নেমে পড়ায় কোহলিদের আচরণের তীব্র নিন্দা জানাই। এ জন্য আইসিসি’র কাছে কড়া শাস্তির দাবির পক্ষে পিসিবিকে অনুরোধ করবো।’

ভারতীয় ক্রিকেট দলকে হুমকি দিয়ে পাকিস্তানের এই তথ্য-সম্প্রচার মন্ত্রী আরো বলেছেন, ‘কোহলিরা ফৌজি টুপি পরে খেলা বন্ধ না করলে, কাশ্মীরে ভারতের দৌরাত্ম্যের কথা বিশ্ব দরবারে তুলে ধরতে কালো আর্মব্যান্ড পরে মাঠে নামবে পাক ক্রিকেটাররা৷’

ফাওয়াদ চৌধুরী সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কোহলিদের ‘আর্মি ক্যাপ’ পরা একটি ছবিসহ টুইটে লিখেছেন, ‘এটা ক্রিকেটীয় কারণে হতে পারে না।’ তার দাবি, ‘আর্মি ক্যাপ’ পরে ভদ্রলোকের খেলা ক্রিকেটে রাজনীতি ঢুকিয়ে কলুষিত করেছে ভারতীয় দল। তিনি পিসিবিকে আইসিসির কাছে আনুষ্ঠানিক প্রতিবাদ জানানোর আহবান জানান। আর আইসিসিকেও এ ব্যাপারে ব্যবস্থা নিতে বলেছেন তিনি। যদি তাতেও কাজ না হয়, তাহলে পাকিস্তান দলকে কালো ব্যান্ড পরে খেলতে নামারও পরামর্শ দিয়ে রেখেছেন।