নিজেই তৈরি করুন সুগন্ধি মোমবাতি

বুধবার, জানুয়ারি ২৩, ২০১৯

লাইফস্টাইল ডেস্ক : বিশেষ কোনো দিন এলেই আমরা অনেকেই সুগন্ধি মোমবাতির খোঁজ করি। প্রিয়জনকে নিয়ে একান্তে কোনো বিশেষ দিন উদযাপনে এই মোমবাতির জুড়ি নেই। কোনো ফুল দিয়ে ঘর না সাজালেও কয়েক রঙের সুগন্ধি মোমবাতি জ্বালিয়ে দিলেই ব্যস! কিন্তু বাজারে পাওয়া মোমবাতিগুলো ক্ষতিকারক।

তাই নিজের হাতেই বানিয়ে নিন মোমবাতিগুলো-

সুগন্ধি মোমবাতি মানসিক প্রশান্তিতেও ভূমিকা রাখে। আর এজন্যই স্পাতে সুগন্ধি মোমবাতি রাখা হয়। তাই ঘরেই বানিয়ে নেয়া যেতে পারে প্রশান্তিদায়ক সুগন্ধি মোমবাতি। সাদা রঙের মোমবাতি ঘরে থাকলে তা অ্যালুমিনিয়ামের পাত্রে চুলায় অল্প আঁচে গলিয়ে নিন। এবার এতে কয়েক ফোঁটা ল্যাভেন্ডার এসেনশিয়াল অয়েল ফেলে নিন।

বাড়িতে ছোট কাচের জার থাকলে তাতে মোটা সুতার এক প্রান্ত রেখে অন্য প্রান্ত জারের বাইরে বের করে গলানো মোম ঢেলে ঠাণ্ডা করে নিন। সন্ধ্যাবেলা বাড়ি ফিরে বা স্নানের সময় এ মোমবাতি ব্যবহার করা যেতে পারে।

শিশুর ক্রেয়ন রঙ আকারে ছোট হয়ে গেলে বেশির ভাগ সময়ই অব্যবহূত হয়ে পড়ে থাকে। সেক্ষেত্রে রঙিন মোমবাতি তৈরিতে এগুলো ব্যবহার করা যায়। সেক্ষেত্রে একটি মোমবাতিতেই যদি হরেক রঙের সন্নিবেশ ঘটাতে চান, তবে তিনটি রঙের ক্রেয়ন আলাদা আলাদা পাত্রে সাদা রঙের মোমের সঙ্গে গলিয়ে নিতে হবে।

অব্যবহূত সিরামিক বা কাচের মগে আগের মতো একই উপায়ে সুতো রেখে প্রথমে একটি রঙের গলানো মোম ঢালুন। তা কিছুটা ঠাণ্ডা ও জমে গেলে দ্বিতীয় রঙের মোম ঢালুন। সবশেষে তৃতীয় রঙের মোম ঢেলে ভালোভাবে জমতে দিন। এমন রঙিন মোম স্বচ্ছ কাচের পাত্রে রাখলেই ভালো দেখায়।

অ্যারোমা থেরাপির জন্য চায়ের সুগন্ধযুক্ত মোম ঘরে বসেই বানিয়ে ফেলা যেতে পারে। এর জন্য বিশেষ কোনো ঝামেলা পোহাতে হবে না। পছন্দের চায়ের যেকোনো একটি টি-ব্যাগ ভাপে একটু গরম করে নিতে হবে।

এরপর একটি কাপে এসেনশিয়াল অয়েল নিয়ে সেই টি-ব্যাগ ভিজিয়ে রাখুন। এতে করে চায়ের নির্যাস মিশে যাবে এসেনশিয়াল অয়েলে। এরপর আগের নিয়মে গলানো মোমে এ চায়ের নির্যাসযুক্ত এসেনশিয়াল অয়েল ঢেলে পছন্দের মাটির, কাচের, পিতল বা সিরামিকের পাত্রে ঢেলে নিলেই তৈরি হয়ে যাবে সুগন্ধি মোম।

সমুদ্র ভালোবাসে না এমন মানুষ আদৌ খুঁজে পাওয়া যাবে? আর সমুদ্রপাড়ে গেলেই মুঠোভরে শামুক আর ঝিনুকের খোল নিয়ে আসতে ভোলে না তারা। শামুক আর ঝিনুকের খোলও নান্দনিক মোমবাতি তৈরিতে ব্যবহূত হয়। গলানো মোমে নিজের পছন্দমতো এসেনশিয়াল অয়েল মিশিয়ে এসব খোলে ঢেলে জমাট বাঁধিয়ে নিলেই হলো।

কফি স্ট্রেস কমায়, কফির সুগন্ধও তাই। ঘরের দুর্গন্ধ দূর করতে কফি গ্রাউন্ড করে দরজার পাশে রেখে দেয়ার টোটকা কম-বেশি সবাই জানে। তাহলে প্রিয় মোমবাতিতেও থাকুক কফির সুগন্ধ। সেক্ষেত্রে মোম গলানোর সময়ই এক মুঠ কফি বিন ঢেলে দিন। এরপর সিরামিকের পাত্রে ঢেলে জমিয়ে নিলেই হলো। একই সঙ্গে এ মোমবাতি স্ট্রেস কমাবে আর ছড়াবে সুগন্ধও।