ফিল্ডিংয়ে বাংলাদেশ, আরিফুল-নাজমুলের অভিষেক

শনিবার, নভেম্বর ৩, ২০১৮

স্পোর্টস ডেস্ক: দুই ম্যাচ সিরিজের প্রথম টেস্টে টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সফরকারী জিম্বাবুয়ে। শনিবার (৩ নভেম্বর) সকালে সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে এ টস অনুষ্ঠিত হয়।

ম্যাচটি সকাল সাড়ে ৯টায় অনুষ্ঠিত হবার কথা থাকলেও আবহাওয়ার কারণে আধাঘণ্টা পেছানো হয়। অর্থ্যাৎ সকাল ১০টায় মাঠে নামে দুই দল। এদিকে আজকের ম্যাচে অভিষেক হয়েছে আরিফুল হক ও নাজমুল ইসলাম অপুর।

অন্যদিকে, এ ম্যাচ দিয়েই বাংলাদেশের অষ্টম ও বিশ্বের ১১৬তম টেস্ট ভেন্যু হিসেবে অভিষেক হচ্ছে সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামের। উপলক্ষটা স্মরণীয় করে রাখতে অনেক আয়োজনই করেছেন আয়োজকরা।

ক্রিকেটের তীর্থভূমি লর্ডস ও কলকাতার ইডেন গার্ডেনের মতো সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামেও টেস্ট শুরু হবে ঘণ্টা বাজিয়ে। সিলেট ভেন্যুর টেস্ট অভিষেকে আজ ঘণ্টা বাজাবেন জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক ও বিসিবি পরিচালক আকরাম খান।

১৮৪৫ সালের ৩ মার্চ সিলেটেই হয়েছিল ভারতীয় উপমহাদেশের প্রথম ক্রিকেট ম্যাচ। ব্রিটিশ শাসনামলে লাইট কোম্পানির ভারতীয় সৈনিক ক্রিকেট দল খেলেছিল ইউরোপিয়ান অফিসার দলের বিপক্ষে। ইউরোপিয়ান অফিসার দল জিতেছিল ৭১ রানে। সেই ম্যাচের ১৭৩ বছর পর সিলেটে টেস্ট ম্যাচ হচ্ছে।

দেশের অষ্টম ভেন্যুর অভিষেক টেস্ট জয় দিয়ে রাঙাতে চায় বাংলাদেশ। এখন পর্যন্ত দেশের কোনো টেস্ট ভেন্যুর অভিষেক জয় দিয়ে রাঙাতে পারেননি টাইগাররা। সেই আক্ষেপ এবার দূর করতে চান এ সিরিজের বাংলাদেশ অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ, ‘সিলেটের এ ভেন্যু অনেক সুন্দর। আমরা জয় দিয়েই এ ভেন্যুর টেস্ট অভিষেক উদযাপন করতে চাইব।’

নিয়মিত অধিনায়ক সাকিব আল হাসান চোট নিয়ে মাঠের বাইরে থাকায় দেশের মাটিতে আরও একটি টেস্ট সিরিজে দলকে নেতৃত্ব দিতে যাচ্ছেন মাহমুদউল্লাহ।

শুক্রবার সংবাদ সম্মেলনে তিনি জানালেন, সাকিব ও তামিমের অনুপস্থিতিতে একাদশ নিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষার সুযোগ থাকলেও জয় দিয়ে সিরিজ শুরু করতে প্রথম টেস্টে সম্ভাব্য সেরা দল নিয়েই মাঠে নামবে বাংলাদেশ।

পরীক্ষা-নিরীক্ষার সুযোগ দ্বিতীয় টেস্টে নিতে চান মাহমুদউল্লাহ। সাকিব-তামিমের অনুপস্থিতিকে দলের অন্যদের জন্য নিজেদের প্রমাণের সুযোগ হিসেবে দেখছেন তিনি, ‘এ চ্যালেঞ্জটা আমাদের নিতে হবে। খেলোয়াড়রা সবাই সুযোগের অপেক্ষায় আছে। ভালো পারফরম্যান্সের জন্য তারা প্রস্তুত।’

এ সিরিজে মাহমুদউল্লাহর দুটি লক্ষ্য। প্রথমটি জয়, দ্বিতীয়টি ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে পরের সিরিজের প্রস্তুতি। মাহমুদউল্লাহর ভাষায়, ‘জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচে ভালো করতে পারলে সেই আত্মবিশ্বাস আমরা দ্বিতীয় টেস্টে নিয়ে যেতে পারব। আর যদি বড় লক্ষ্যের কথা চিন্তা করি, সামনের ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজ আমাদের মূল লক্ষ্য থাকবে।’

অন্যদিকে বাংলাদেশের বিপক্ষে শেষ চার টেস্টেই হারা জিম্বাবুয়ের লক্ষ্য জয়ের ধারায় ফেরা। এমনটাই জানালেন জিম্বাবুয়ের অধিনায়ক হ্যামিল্টন মাসাকাদজা। টেস্টে জিম্বাবুয়ে সর্বশেষ জিতেছিল পাঁচ বছর আগে। এরপর ১২ টেস্টের ১১টিতেই হার। একটিতে ড্র।

বাংলাদেশ দল: লিটন দাস, ইমরুল কায়েস, নাজমুল হোসেন, মুমিনুল হক, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ, মেহেদী হাসান মিরাজ, তাইজুল ইসলাম, নাজমুল ইসলাম ও আবু জায়েদ, আরিফুল হক।