আইয়ুব বাচ্চুর প্রথম জানাজা অনুষ্ঠিত

শুক্রবার, অক্টোবর ১৯, ২০১৮

ঢাকা: যে শিল্পী গেয়েছিলেন ‘এই রুপালী গিটার ছেড়ে, চলে যাবো বহু দূরে…’ তিনি সত্যিই চলে গেছেন বহু দূরে। লাখো ভক্তকে রেখে পাড়ি জমিয়েছেন না ফেরার দেশে। তার বিদায়ে বিষাদ ভর করেছে ভক্ত হৃদয়ে। ভাঙা হৃদয় নিয়ে জানাজা পড়ে হাজার হাজার ভক্ত শেষ বিদায় জানালো তাদের প্রিয় শিল্পী আইয়ুব বাচ্চুকে।

বৃহস্পতিবার (১৮ অক্টোবর) সকাল দশটার একটু মৃত্যুবরণ করেন কিংবদন্তি কণ্ঠশিল্পী, গিটার জাদুকর আইয়ুব বাচ্চু। শুক্রবার সকাল সাড়ে দশটা থেকে তার মরদেহ রাখা হয় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গনে। শহীদ মিনারে প্রিয় শিল্পীকে শেষবারের মতো দেখতে ভিড় জমায় হাজার হাজার ভক্ত। নির্ধারিত সময় পেরিয়ে গেলেও ভক্তদের স্রোতে আইয়ুব বাচ্চুর মরদেহ রাখা হয় শহীদ মিনারে।

সেখান থেকে আইয়ুব বাচ্চুর মরদেহ নিয়ে যাওয়া হয় জাতীয় ইদগাহ ময়দানে। এখানেই প্রথম জানাজা অনুষ্ঠিত হয় আইয়ুব বাচ্চুর। বাদ জুমা জানাজা শুরু হয়। জানাজায় ইমামতি করেন সুপ্রিম কোর্ট জামে মসজিদের খতিব আবু সালেহ মুহাম্মদ কলিমউল্লাহ।

আইয়ুব বাচ্চুর প্রথম জানাজায় আনুমানিক প্রায় ৫০ অংশ নেন। প্রচুর জনসমাগমের কারণে জানাজা নির্ধারিত সময়ের কিছু পরে শুরু হয়।

জানাজা শুরু হওয়ার আগে পরিবারের পক্ষ থেকে কথা বলেন আইয়ুব বাচ্চুর ছোট ভাই ইরফান ছুট্টু। আইয়ুব বাচ্চুর ভক্তদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে বলেন, ‘বাচ্চু ভাই সব সময় নিজের বাবা ও মাকে সম্মান দিতেন। আপনারা তাঁর জন্য দোয়া করবেন।’

বড় ভাইয়ের হয়ে ক্ষমা চেয়ে তিনি বলেন, ‘বাচ্চু ভাইয়ের কাছে কোনো দেনা-পাওনা থাকলে আমার সঙ্গে যোগাযোগ করবেন। উনার কোনো ভুলত্রুটি হলে ক্ষমা করে দেবেন।’

শনিবার কানাডা থেকে ছেলে এবং অস্ট্রেলিয়া থেকে মেয়ে দেশে ফিরলে চট্টগ্রামে জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে মায়ের পাশে আইয়ুব বাচ্চুর মরদেহ দাফন করা হবে।