ইউনিলিভারসহ ৮ ব্যক্তি-প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে ১১ মামলা

বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর ২২, ২০২২

ঢাকা: চাল, আটা, ময়দা, ডিম, ব্রয়লার মুরগির পাশাপাশি সাবানসহ টয়লেট্রিজ পণ্যের বাজারে কৃত্রিম সংকট তৈরি এবং অস্বাভাবিক দাম বাড়ানোর দায়ে আট ব্যক্তি-প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে ১১টি মামলা করেছে রাষ্ট্রায়ত্ত প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ প্রতিযোগিতা কমিশন।

এসব প্রতিষ্ঠানের মধ্যে রয়েছে বহুজাতিক কোম্পানি ইউনিলিভার, সিটি গ্রুপ, কাজী ফার্মস ও প্যারাগন। বৃহস্পতিবার (২২ সেপ্টেম্বর) কমিশনের সংশ্লিষ্ট এক কর্মকর্তা ঢাকা পোস্টকে এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

জানা গেছে, সম্প্রতি এসব কোম্পানি-ব্যক্তির ‘কারসাজি’র কারণে নিত্যপণ্যের বাজারে অস্থিরতা সৃষ্টি হয়েছে। এতে বিপাকে পড়েছেন সাধারণ ভোক্তারা। এ কারণে কমিশন ‘স্ব-প্রণোদিত’ হয়ে এ মামলা দায়ের করেছে।

চালের বাজারে সংকটের জন্য কুষ্টিয়ার রশিদ অ্যাগ্রো ফুড প্রোডাক্টস লিমিটেডের স্বত্বাধিকারী আব্দুর রশিদ ও নওগাঁর বেলকন গ্রুপ প্রাইভেট লিমিটেডের স্বত্বাধিকারী বেলাল হোসেনের নামে মামলা করা হয়েছে। একই কারণে সিটি গ্রুপ অব ইন্ডাস্ট্রিজ ও বাংলাদেশ এডিবল অয়েল লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালুকের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।

আটা, ময়দার বাজারে সংকট তৈরির অভিযোগে সিটি গ্রুপ অব ইন্ডাস্ট্রিজের নামে আরেকটি মামলা করা হয়েছে।

অন্যদিকে, ডিমের বাজারে সংকট তৈরি করায় প্যারাগন পোল্ট্রি লিমিটেডের ম্যানেজিং ডিরেক্টর, কাজী ফার্মস গ্রুপের ম্যানেজিং ডিরেক্টর কাজী জাহেদুল হাসান এবং ডিম ব্যবসায়ী আড়তদার বহুমুখী সমবায় সমিতির সভাপতি আমানত উল্লাহর বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।

পাশাপাশি মুরগির বাজারে সংকটের দায়েও প্যারাগন পোলট্রি লিমিটেডের ম্যানেজিং ডিরেক্টর, কাজী ফার্মস গ্রুপের ম্যানেজিং ডিরেক্টর কাজী জাহেদুল হাসানের নামে একটি করে আরও দুটি মামলা হয়েছে।

দেশের বাজারে নিত্যপণ্যের (সাবান, সুগন্ধী সাবান, গুঁড়া সাবান, ইত্যাদি) সংকট তৈরির অভিযোগে ইউনিলিভার বাংলাদেশ লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালকের নামে মামলা হয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বাংলাদেশ প্রতিযোগিতা কমিশনের চেয়ারপারসন মফিজুল ইসলাম বলেন, চাল আটা-ময়দা, ডিম, ব্রয়লার মুরগী ও টয়লেট্রিজ পণ্যের সংকট তৈরি এবং অস্বাভাবিক দাম বাড়িয়েছে এমন কয়েকটি প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে কমিশন মামলা করেছে। আগামী ২৬ সেপ্টেম্বর থেকে ধারাবাকিভাবে তাদের শুনানি হবে।