ভূমি মন্ত্রণালয়ের সাবেক কর্মকর্তা কুতুবের জামিন বাতিল

বুধবার, আগস্ট ৩১, ২০২২

ঢাকা : শ্বশুরসহ কয়েকজন আত্মীয়ের নামে ১০ কাঠার প্লট বরাদ্দ নিয়ে আত্মসাতের ঘটনায় ভূমি মন্ত্রণালয়ের সাবেক প্রশাসনিক কর্মকর্তা কুতুব উদ্দিন আহমেদের জামিন বাতিল করে দিয়েছে আপিল বিভাগ।

বিচারপতি মো. নূরুজ্জামানসহ তিন বিচারপতির আপিল বেঞ্চ বুধবার এ আদেশ দেয়।

আদালতে কুতুবের পক্ষে ছিলেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী মুনসুরুল হক চৌধুরী। দুদকের পক্ষে ছিলেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী খুরশীদ আলম খান।

আইনজীবী মুনসুরুল হক চৌধুরী বলেন, ‘আদালত জামিন দেননি। আবেদনটি নিষ্পত্তি করে দিয়েছেন।’

গত ২০ জুলাই আপিল বিভাগের চেম্বার বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিমের আদালত কুতুবকে হাইকোর্টের দেয়া জামিন স্থগিত করে দেয়।

ভুয়া আমমোক্তারনামার মাধ্যমে প্লট আত্মসাতের মামলায় পাঁচ বছরের সাজা হয় কুতুবের। গত ১৪ জুলাই তাকে ছয় মাসের জামিন দেয় হাইকোর্ট। হাইকোর্টের এ জামিনাদেশ স্থগিত চেয়ে আপিল বিভাগে আবেদন করে দুদক।

ওই মামলায় চলতি বছরের ১৪ ফেব্রুয়ারি কুতুবকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেয় ঢাকার বিশেষ জজ আদালত। এরপর গত ১৬ মার্চ বিচারিক আদালতের সাজার বিরুদ্ধে কুতুবের আপিল শুনানির জন্য গ্রহণ করে হাইকোর্ট।

২০১৮ সালের ৮ এপ্রিল রাজধানীর গুলশান থানায় কুতুব উদ্দিনের নামে মামলা করেন দুদকের উপপরিচালক মির্জা জাহিদুল আলম। পরে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

কুতুব উদ্দিনের বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি সরকারি কর্মকর্তা হওয়া সত্ত্বেও ভুয়া আমমোক্তারনামার মাধ্যমে গুলশানে ১০ কাঠার প্লট তার শ্বশুরসহ কয়েকজনের নামে বরাদ্দ করেছেন।