পঞ্চগড়ে ধর্ম অবমাননাকর মিথ্যা প্রচারের অভিযোগে এবার প্রধান শিক্ষক বরখাস্ত!

বুধবার, আগস্ট ১৭, ২০২২

ডিজার হোসেন বাদশা, পঞ্চগড় প্রতিনিধি : পঞ্চগড়ের বোদা সাকোয়া উচ্চ বিদ্যালয়ে হিজাবকে নিয়ে ধর্ম অবমাননাকর মিথ্যা প্রচার ও নিয়োগ বাণিজ্যসহ চাঁদাবাজির অভিযোগে এবার সাকোয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সায়েদ মঞ্জুরুল হাসান সুজাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। তিনি পঞ্চগড়ের বোদা উপজেলার সাকোয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

বুধবার (১৭ আগস্ট) রাতে বিদ্যালয়ের গভর্নিং বডির সভাপতি হাফিজুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেন। এর আগে সহকারী প্রধান শিক্ষক আশরাফুল আলম অভিযোগ দায়ের করলে মঙ্গলবার (১৬ আগস্ট) প্রধান শিক্ষক সায়েদ মঞ্জুরুল হাসান সুজাকে সাময়িক বরখাস্ত করে নোটিশ প্রদান করা হয়।

গভর্নিং বডির সভাপতি হাফিজুর রহমান বলেন, গত মাসের শেষ দিক থেকে বোদা সাকোয়া উচ্চ বিদ্যালয়ে হিজাব কান্ড নিয়ে একটি বাজে অবস্থা সৃষ্টি হয়। সেই অবস্থার মাঝে ৩১ জুলাই বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক আশরাফুল আলম দায়িত্বে থাকা অবস্থায় প্রধান শিক্ষক সায়েদ মঞ্জুরুল হাসান সুজার বিরুদ্ধে একটি অভিযোগ দায়ের করে। অভিযোগের প্রেক্ষিতে তদন্ত ও কিছু সতত্য পাওয়ায় সুজাকে প্রথমে শোকজ করা হয়। এর পর আবারো তদন্তের ভিত্তিতে তাকে মঙ্গলবার সাময়িক ভাবে বরখাস্ত করা হয়। এ বিষয়ে প্রধান শিক্ষকসহ সহাকরী প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে তদন্ত চলমান রয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

অভিযোগকারী বরখাস্ত সহকারী প্রধান শিক্ষক আশরাফুল আলম বলেন, আমার বিরুদ্ধে গত ২৮ জুলাই অভিযোগ দায়ের হওয়ার পর আমি সত্য বিষয়টি উল্লেখ করে স্কুলের একই তদন্ত কমিটিকে অভিযোগটি দেই ৩১ জুলাই। প্রধান শিক্ষক কৌশলে শিক্ষার্থীদের নিয়ে আমার বিরুদ্ধে ধর্ম অবমাননাকর মিথ্যা অভিযোগ করে। তাই সেই অভিযোগের প্রতিবাদ জানিয়ে প্রধান শিক্ষের বিরুদ্ধে ধর্ম অবমাননাকর মিথ্যা প্রচার ও নিয়োগ বাণিজ্যসহ চাঁদাবাজির অভিযোগ দায়ের করি। সেই অভিযোগের প্রেক্ষিতে তাকেও মঙ্গলবার (১৬ আগস্ট) বহিস্কার করেছে সভাপতি।

এ বিষয়ে বরখাস্ত প্রধান শিক্ষক সায়েদ মঞ্জুরুল হাসান সুজার সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, অভিযোগকারী সহকারী প্রধান শিক্ষক আশরাফুল আলম নিজের আত্মরোক্ষার্থে আমার নামে মিথ্যা অভিযোগ করেছে। অভিযোগটি পুরো ভিত্তিহিন।

এর আগে হিজাব পরায় তিন ছাত্রীর সঙ্গে সম্প্রতি অসদাচরণের অভিযোগ ওঠে সাকোয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের বরখাস্ত সহকারী প্রধান শিক্ষক আশরাফুল আলমের বিরুদ্ধে। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সায়েদ মঞ্জুরুল হাসান সুজাকে গত ২৮ জুলাই লিখিত অভিযোগ করে তিন শিক্ষার্থী। এ ঘটনায় তাকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়। সেই নোটিশের জবাব দেওয়ার সাত মিনিটের মাথায় রোববার (১৪ আগস্ট) বেলা ১১টার দিকে তাকে বরখাস্ত করেছেন গভর্নিং বডির সভাপতি হাফিজুর রহমান।