ষড়যন্ত্রের কথা শুনতে শুনতে জনগণের কান ঝালাপালা: রিজভী

শুক্রবার, আগস্ট ৫, ২০২২

ঢাকা : প্রধানমন্ত্রী ও মন্ত্রীদের মুখে ষড়যন্ত্র, চক্রান্তের কথা শুনতে শুনতে জনগণের কান ঝালাপালা হয়ে গেছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

শুক্রবার (৫ আগস্ট) বিকেলে রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয় অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ মন্তব্য করেন।

রিজভী বলেন, শেখ হাসিনা ও তার কতিপয় মোসাহেব মন্ত্রীর মুখে এ ধরনের ষড়যন্ত্র, চক্রান্ত ইত্যাদি কথা শুনতে শুনতে দেশের জনগণের কান ঝালাপালা। নির্বাচন ঘনিয়ে আসলে এ জাতীয় হাস্যকর নাটুকে কথাবার্তা বেশি বেশি শোনা যায়। ভোটারবিহীন আরেকটি নির্বাচন করার জন্য এসব বাহানা করছে এটা সবাই বুঝে।

তিনি বলেন, নিশিরাতের ফ্যাসিস্ট এ গণদুশমন সরকারের পতন ঘটানো কোনো চক্রান্ত নয়, বরং এটি বাংলাদেশের গণতন্ত্রকামী জনগণের নৈতিক ও ঐতিহাসিক দায়িত্ব। ভোটাধিকার ও জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠার জন্য দেশের মানুষ নিয়মতান্ত্রিক আন্দোলন করছে একটা মহৎ লক্ষ্যকে সামনে রেখে। সুতরাং এ আন্দোলনে যারা শরীক হবেন তারা সত্যের পক্ষে, ন্যায়ের পক্ষে, গণতন্ত্রের পক্ষে। আসন্ন দুর্বার গণআন্দোলন আঁচ করতে পেরে ভীত সন্ত্রস্ত হয়ে পড়েছে সরকার। এজন্য নতুন নতুন ষড়যন্ত্র তত্ত্ব আবিষ্কার করছে।

সরকার ফুসে ওঠা জনরোষ থেকে বাঁচতে হিংস্র হয়ে উঠেছে বলে মন্তব্য করে রিজভী বলেন, দ্রব্যমূল্যের চরম ঊর্ধ্বগতি, নজিরবিহীন লোডশেডিং, জ্বালানি সংকট, সীমাহীন লুটপাট ও অর্থপাচারের প্রতিবাদে সারাদেশ যখন প্রতিবাদ মুখর, তখন অবৈধ দখলদার সরকার জোরপূর্বক ক্ষমতায় থাকতে বেসামাল হয়ে জনগণের ন্যায়সঙ্গত শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে গুলিবর্ষণ করে পাখির মতো বিএনপি নেতাকর্মীদের হত্যা করছে।

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব বলেন, এ হত্যাকাণ্ড পূর্ব পরিকল্পিত। সরকার তার পুলিশ বাহিনীকে দিয়ে সম্পূর্ণ শান্তিপূর্ণ এ প্রতিবাদ মিছিলে গুলি চালিয়ে আবারও প্রমাণ করলো বল প্রয়োগ করে জবরদস্তি করে ফ্যাসিবাদী কায়দায় আওয়ামী শাসকগোষ্ঠী ক্ষমতা চিরস্থায়ী করতে চায়। আমরা আব্দুর রহিম ও নুরে আলমের রক্ত বৃথা যেতে দেবো না। জনগণের অভ্যুত্থানে এ সরকারের পতন ঘটবে। তারপর জনগণের সরকার কড়ায় গণ্ডায় বিচার করবে। সব হত্যাকাণ্ডেরই বিচার হবে।