এক মাসে ৫ কেজি ওজন কমানোর ডায়েট চার্ট

শনিবার, জুলাই ৩০, ২০২২

ওজন কমানো কি আর মুখের কথা? নির্দিষ্ট ডায়েট, রোজ ব্যায়াম সবকিছু ঠিকঠাক করতে পারলেই তবে ঝরানো যায় মেদ। অনেকে অবশ্যই বুঝতে পারেন না কীভাবে ডায়েট চার্ট সাজাবেন। কখন কী খাবেন বা কীভাবে খাবেন তা নিয়ে পড়েন দ্বিধায়।

নির্দিষ্ট ডায়েট মেনে চললে এক মাসে ৫/৬ কেজি ওজন কমানো সম্ভব। জানুন বিস্তারিত।

ঘুম থেকে উঠে 

সকালে ঘুম থেকে উঠতে ইচ্ছাই করে না? কিন্তু, ওজন কমাতে চাইলে এই অভ্যাসটি করতেই হবে। ভোরে ঘুম থেকে উঠেই একটি বিশেষ পানীয় তৈরি করতে হবে। একটি প্যানে পানি নিয়ে তাতে ৫টি কাঠ বাদাম আর ২/৩টি খেজুর সেদ্ধ করে নিন। প্রথমে সেদ্ধ করা পানি পান করুন। এরপর বাদাম আর খেজুর খান। সারাদিনের পুষ্টি পূরণ করবে এটি। তাছাড়া খেজুরে প্রাকৃতিক চিনি থাকায় এটি মিষ্টি খাবার খাওয়ার প্রবণতাও কমাবে।

oatsসকালের নাস্তা 

ওজন কমানোর এই ডায়েটে থাকলে সকালের নাস্তা খেতে হবে সকাল আটটার মধ্যে। নাস্তা হিসেবে খাবেন ওটস। একটি বাটিতে হাফ কাপ ওটস, ১-২ চামচ গুড় বা মধু, অর্ধেক কাপ দই ভালো করে মিশিয়ে নিন। এর সঙ্গে মেশান ১ চামচ চিয়া সিডস। (আগের রাতে এক গ্লাসে পানিতে ভিজিয়ে রাখুন)

এবার ওটসের মিশ্রণে আম, কলা, আপেল বা বেরি মিশিয়ে খান। দুপুর সাড়ে ১১টা-১২টার দিকে খিদা লাগলে নারিকেল বা এক মুঠ বাদাম খেতে পারেন। এটি পেট ভরা রাখতে সাহায্য করবে।

riceদুপুরের খাবার 

বেলা ১টা থেকে ২টার মধ্যে দুপুরের খাবার খেতে হবে। তা না হলে কোনো উপকারই পাবেন না। পাতে রাখবেন এক কাপ ডাল, এক বাটি ভাত, এক বাটি রায়তা আর এক বাটি সালাদ। প্রোটিন সমৃদ্ধ খাবারগুলো দীর্ঘ সময় পেট ভরা রাখবে।

সন্ধ্যার নাস্তা

বিকাল বা সন্ধ্যার নাস্তায় রাখুন গুড় বা ব্রাউন সুগার দিয়ে বানানো এক কাপ মসলা চা। সঙ্গে রাখতে পারেন এক চামচ ঘিতে ভাজা এক মুঠো বাদাম।

smoothieরাতের খাবার 

রাতের বেলা যত হালকা খাবার খাবেন ততই মঙ্গল। এক গ্লাস বেরি স্মুদি খেতে পারেন। অন্য কোনো ফল দিয়েও স্মুদি বানাতে পারেন।

ঘুমোনোর আগে

ঘুমানোর আগে পান করুন এক কাপ গ্রিন টি। এটি শরীর ডিটক্সিফাই করবে। রাতের ঘুমও ভালো হবে।

নির্দিষ্ট এই ডায়েট চার্ট মানুন। এক মাসে ৫/৬ কেজি ওজন কমবে।