বন্যার্তদের প্রতি সরকারের নজর নেই: ফখরুল

বুধবার, জুন ২২, ২০২২

ঢাকা: সরকার বন্যার্তদের জন্য কী করছেন তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। বুধবার (২২ জুন) বিকালে গুলশানে চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলন তিনি এই প্রশ্ন তুলেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, প্রধানমন্ত্রী কালকে সিলেটে গিয়েছেন। ভালো কথা। তিনি মিটিং করেছে। সেখানে তিনি সিলেটের মেয়র আরিফ সাহেবকে (আরিফুল হক চৌধুরী) বলেছেন, কোথায় তোমাদের বিএনপি.. কত দিয়েছে তোমাকে।

‘বিএনপির তো দায়িত্ব না এটা। এই বন্যা পরিস্থিতি দেখভাল করার সমস্ত দায়িত্ব সরকারের। যখন তিনি এই কথা বলেন। তখন তার (প্রধানমন্ত্রী) তো নিজের দিকেও একটু তাঁকানো দরকার যে, তারা কি করছে এখন পর্যন্ত? কত দিচ্ছেন বরাদ্ধ? আজকে একটা পত্রিকায় আছে ৩০ লাখ মানুষের জন্য ৬০ লাখ বরাদ্ধ।’

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘আপনারা (সাংবাদিক) নিশ্চয় দেখেছেন যে, পুরো সুনামগঞ্জ জেলা পানির তলে। সিলেট শহরের একটু অংশ বাদ দিয়ে পুরো সিলেট জেলা পানির তলে। সেখানে তারা মাত্র ৬০ লাখ টাকা বরাদ্ধ দিয়েছে।’

‘আমার প্রশ্ন হচ্ছে, যে, জনগণের এই চরম দুরাবস্থার মধ্যে জনগণের পাশে না দাঁড়িয়ে আবারো প্রমাণ করলেন যে, আওয়ামী লীগ আসলে জনগণের কল্যাণের জন্য কোনো দল নয়, জনগণকে প্রতারিত করে ক্ষমতায় টিকে থাকাটাই হচ্ছে তাদের একমাত্র লক্ষ্য এবং সেটা মিথ্যাচার করে, শুধু মিথ্যাচার ছাড়া আর কিছু নয়।’

তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী কালকে সিলেটে গেছেন। হেলিকপ্টারে করে দেখেছেন -খুব ভালো কথা। সার্কিট হাউজে গেছেন, মিটিং করেছেন।’

‘কিন্তু একটু এগিয়ে গিয়ে বন্যার্তদের মাঝে যান নাই। বন্যার্তদের যে একুট সাহস জাগাবেন-এটাও তিনি করেননি।’

বিএনপির ত্রাণ কার্য্ক্রম সম্পর্কে মহাসচিব বলেন, ‘বিএনপি বন্যা শুরুর পর থেকে গত তিনদিন আগে থেকে বন্যার্তদের মাঝে ত্রাণ বিতরণের কাজ শুরু করেছে।

বিএনপি ১০ হাজার, ২০ হাজার টাকায় নৌকা ভাড়া করে প্রত্যন্ত অঞ্চলে গিয়ে যারা পানিতে আটকা পড়েছিলো তাদের উদ্ধার করেছে এবং ত্রাণ দিয়েছে। আজকেও করেছে, প্রতিদিন তারা(বিএনপি) ত্রাণ বিতরণ করে যাচ্ছে।’

সংবাদ সম্মেলনে দলের ত্রাণ কমিটির আহ্বায়ক দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু উপস্থিত ছিলেন।