অন্তর্বর্তীকালীন সরকার চাই : মান্না

বুধবার, জুন ২২, ২০২২

ঢাকা: নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না বলেছেন, অবৈধ সরকার যাতে আর ক্ষমতায় আসতে না পারে সে জন্য নির্দলীয় সরকার নয় অন্তর্বর্তীকালীন সরকার চাই। কারণ নির্দলীয় সরকার কোন আইন করতে পারবে না।

বুধবার (২২ জুন) সকাল ১১টায় জাতীয় প্রেসক্লাবের মাওলানা মোহাম্মদ আকরাম খাঁ মিলনায়তনে ভয়েস ফর ডেমোক্রেসি অ্যান্ড ভোটার রাইটস আয়োজিত নির্বাচনকালীন নির্দলীয় সরকারের প্রয়োজনীয়তা ও নাগরিক ভাবনা শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ সব কথা বলেন।

মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, নির্দলীয় সরকার নেতাকর্মীদের মামলা বাতিল করতে পারবে না। কারণ সে শুধু ভোট করবে। আর অন্তর্বর্তীকালীন সরকার পূর্ণ ক্ষমতা পাবে। একটি গ্রহণযোগ্য নির্বাচন করতে পারবে এবং সব অনিয়ম বাতিল করতে পারবে। অন্তর্বর্তীকালীন সরকার প্রতিষ্ঠায় ও সরকার পতন আন্দোলন বেগবান করতে বিএনপিকে আগে ২০ দলীয় জোট, জামায়াতে ইসলামী ও ঐক্যফ্রন্ট সম্পর্কে স্পষ্ট করতে হবে। তাহলেই সব বিরোধীদল আন্দোলনে নামবে একসঙ্গে।

তিনি বলেন, সরকার দেশের মানুষের জন্য কিছু করছে না। মানুষ নৌকার উপর বিরক্ত তারা নৌকায় ভোট দেবে না। আমরা উন্নয়নের পক্ষে কিন্তু মেগা প্রজেক্টের নামে মেগা লুটপাট মেনে নেব না। ক্ষমতার পরিবর্তন হলে পদ্মা সেতু দুর্নীতির বিচার করা হবে। পদ্মা সেতু নিয়ে কে কবে কি বলেছেন তা সংবাদ সম্মেলনে নাম ধরে বলা ছোট মানসিকতার পরিচয়।

নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক বলেন, বন্যা নিয়ে একজন আমেরিকান সতর্ক করলেও সরকার কোন পদক্ষেপ নেয়নি। তারা আছেন পদ্মা সেতু নিয়ে। বন্যার্তদের জন্য যে ত্রাণ দেওয়া হয়েছে তা অপর্যাপ্ত ও মূল্যহীন।

ভয়েস ফর ডেমোক্রেসি অ্যান্ড ভোটার রাইটসের সদস্য সচিব হুমায়ুন কবির বেপারীর সভাপতিত্বে এতে সঞ্চালনা করেন জয়নাল আবেদীন বাকের।

আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট আজম খান, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আবু নাসের রহমতুল্লাহ, বিএনপি সমর্থিত ঢাকা

সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি কাদের গনী চৌধুরী, জাসাসের আরিফুর রহমান, কৃষকদলের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক শাজাহান সম্রাট, তাঁতি দলের আহ্বায়ক কাজী মনিরুজ্জামান মনি, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. শাহ আলম প্রমুখ।