ভোট যুদ্ধে এক সতীনকে জেতাতে মাঠে আরো দুই সতীন

বুধবার, অক্টোবর ২৭, ২০২১

ডিজার হোসেন বাদশা, পঞ্চগড় প্রতিনিধি : নির্বাচন কমিশন ঘোষিত তৃতীয় ধাপের তফসিল অনুযায়ী পঞ্চগড়ের আটোয়ারী উপজেলায় এক সতীনকে ভোট যুদ্ধে জেতাতে মাঠে নেমেছে আরো দুই সতীন। তিন সতীনের এমন ভালোবাসায় অবাক হয়েছেন পুরো ইউনিয়নবাসী। জানা গেছে, আটোয়ারী উপজেলার রাধানগর ইউনিয়নের মেহেরপাড়া এলাকার বাসিন্দা দেলোয়ার হোসেনের বড় স্ত্রী মহিলা সদস্য পদে নির্বাচনে নেমেছেন।

তৃতীয় ধাপের তফসিল অনুযায়ি আগামী ২৮ নভেম্বর পঞ্চগড় সদর ও আটোয়ারী উপজেলায় ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন (ইউপি) অনুষ্ঠিত হচ্ছে। আর এই ইউপি নির্বাচনকে ঘিরে আটোয়ারী উপজেলার ৪নং রাধানগর ইউপি নির্বাচনে (৪, ৫ ও ৬ নং ওয়ার্ডে) সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে শাহিনা বেগম প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন বলে জানা যায়। এদিকে শাহিনাকে নির্বাচিত করতেই পুরো দমে মাঠে নেমেছেন তার অন্য দুই সতীন। এখনো মনোনয় পত্র দাখিল না হলেও প্রচারণায় তিন সতীন একত্রিত হয়ে দিনরাত নির্বাচনী এলাকা চষে বেড়াচ্ছেন ও দোয়া চাইছেন।

জানা যায়, প্রতিদিন সকালে তিন সতীন শাহিনা আক্তার, আকলিমা বেগম ও রত্না বেগম স্বামী দেলোয়ার হোসেনকে সঙ্গে নিয়ে গণসংযোগে বের হন। সন্ধ্যা পর্যন্ত জয়ের আশায় ওয়ার্ডের বাড়ি বাড়ি ক্লান্তিহীনভাবে ছুটে বেড়ান। তিন সতীন একই সঙ্গে ভোটারের কাছে গিয়ে গণসংযোগের বিষয়টি ভোটারদের মধ্যেও আগ্রহের বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। সতীনদের এমন সম্পর্ক অনেকটাই অবাক করার মত, সতীনদের দাবী কেবল নির্বাচন উপলক্ষে নয় তাদের তিনজনের মধ্যে মধুর সম্পর্ক আগা গড়া থেকে।

সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদ প্রার্থী শাহিনা বেগম বলেন, সুখে দুঃখে আমরা তিন সতীন একে অপরের পাশে দারাই। এবারের নির্বাচনে অপর দুই সতীন ও স্বামীর পরামর্শে ভোটে দারাচ্ছি। মানুষের মাঝে নিজেকে পরিচিত করতে সকলের কাছে গিয়ে দোয়া চাচ্ছি। ভোট উপলক্ষে প্রচারণায় এলাকার মানুষের অনেকটাই সহযোগীতা পেয়েছি। ইনশাআল্লাহ জয়যুক্ত হবো।

মেজো সতীন আকলিমা বেগম বলেন, আমার স্বামী মোট ৩টা বিয়ে করেছে। সবাই আমরা একসাথে বসবাস করি। এবারের ইউপি নির্বাচনে আমার আপা (বড় সতীন) ভোটে নেমেছে। তাই তাকে জয়যুক্ত করতে আমরা একত্রিত হয়ে প্রচারণা করছি।

ছোট সতীন নত্না বেগম বলেন, আমরা তিন সতীন মিলে স্বামীকে নিয়ে গণসংযোগ করতেছি। সবাই বিষয়টি ভিন্ন ভাবে দেখছে। ইতিমধ্যে অনেকটা সারা পেয়েছি।

তিন সতীনের স্বামী মৎসচাষী দেলোয়ার হোসেন। এক মেয়ে ও তিন ছেলে সন্তান রয়েছে। স্বামীর দাবি তিন সতীন বৈঠক করে হাসি মুখে সমর্থন দেন শাহিনা বেগমকে।

স্বামী দেলোয়ার হোসেন বলেন, তিন বউ ও বাচ্চাদের নিয়ে অনেক সুখে শান্তিতে আছি। আমার প্রথম স্ত্রী শাহিনা জনসমর্থীত এবং জনগণের সমর্থন রয়েছে। স্থানীয় ও ভোটাররা আমাদের পাশে রয়েছে। ইনশাআল্লাহ আমরা জয়ি হবো।

এলাকাবাসীও জানান তিন সতীনের সংসার হলেও কোনদিনও বিবাদে জড়াননি তার জয়ের ব্যাপারের আশাবাদীও ভোটারেরা।