বিশ্বে একদিনে বেড়েছে মৃত্যু ও শনাক্ত

বুধবার, অক্টোবর ১৩, ২০২১

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে বিশ্বজুড়ে মৃত্যু ও শনাক্ত বেড়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বে করোনায় মারা গেছেন সাড়ে ৬ হাজারের বেশি মানুষ। একই সময়ে আক্রান্ত হয়েছে পৌনে চার লাখের গণ্ডি।

ওয়ার্ল্ডোমিটারস’র তথ্যানুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বে করোনায় মারা গেছেন ৬ হাজার ৬৭৮ জন। অর্থাৎ আগের দিনের তুলনায় মৃত্যু বেড়েছে ২ হাজার ১৩৩ জন। এতে বিশ্বজুড়ে মৃতের সংখ্যা পৌঁছেছে ৪৮ লাখ ৮০ হাজার ৭৪৩ জনে।

একই সময়ে আক্রান্ত হয়েছেন ৩ লাখ ৮৫ হাজার ৮৯৫ জন। অর্থাৎ আগের দিনের তুলনায় শনাক্ত বেড়েছে প্রায় ৭৫ হাজার। এতে মোট আক্রান্ত বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৩ কোটি ৯৪ লাখ ৪৪ হাজার ৩০৪ জনে।

এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় সবচেয়ে বেশি সংক্রমণ ও প্রাণহানি ঘটেছে যুক্তরাষ্ট্রে। এই সময়ে দেশটিতে আক্রান্ত হয়েছেন ৮২ হাজার ৪৭৮ জন এবং মারা গেছেন ১ হাজার ৪৬৫ জন। দেশটিতে এখন পর্যন্ত ৪ কোটি ৫৪ লাখ ২৭ হাজার ২৭৭ জন আক্রান্ত হয়েছেন এবং ৭ লাখ ৩৭ হাজার ৫৬৮ জন মারা গেছেন।

অন্যদিকে দৈনিক প্রাণহানির তালিকায় এরপরই রয়েছে রাশিয়া। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে মারা গেছেন ৯৭৩ জন এবং সংক্রমিত হয়েছেন ২৮ হাজার ১৯০ জন। এ ছাড়া এ পর্যন্ত দেশটিতে মোট শনাক্ত ৭৮ লাখ ৩২ হাজার ৯৬৪ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ২ লাখ ১৮ হাজার ৩৪৫ জনের।

লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিল আক্রান্তের দিক থেকে তৃতীয় ও মৃত্যুর সংখ্যায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে মারা গেছেন ১৭৬ জন এবং সংক্রমিত হয়েছেন ৭ হাজার ৩৫৯ জন। অপরদিকে এ পর্যন্ত দেশটিতে মোট শনাক্ত ২ কোটি ১৫ লাখ ৯০ হাজার ৯৭ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৬ লাখ ১ হাজার ৪৪২ জনের।

এদিকে করোনায় আক্রান্তের তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে প্রতিবেশী দেশ ভারত। তবে মৃতের সংখ্যায় দেশটির অবস্থান তৃতীয়। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে মারা গেছেন ২২৯ জন এবং আক্রান্ত হয়েছেন ১৬ হাজার ২১ জন। দেশটিতে মোট আক্রান্ত ৩ কোটি ৪০ লাখ ৫০০ জন এবং মারা গেছেন ৪ লাখ ৫১ হাজার ২২০ জন।

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের উহানে প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়। এরপর গত বছরের ১১ মার্চ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) করোনাকে ‘বৈশ্বিক মহামারি’ হিসেবে ঘোষণা করে। এর আগে একই বছরের ২০ জানুয়ারি বিশ্বজুড়ে জরুরি পরিস্থিতি ঘোষণা করে সংস্থাটি।