মার্টিনেজ-লুকাকুর নৈপুণ্যে ফাইনালে ইন্টার মিলান

মঙ্গলবার, আগস্ট ১৮, ২০২০

স্পোর্টস ডেস্ক : দুই অর্ধে দারুণ দুটি গোল করলেন লাউতারো মার্টিনেজ। শেষ দিকে জোড়া গোলের দেখা পেলেন রোমেলু লুকাকুও। দুই তারকা ফুটবলারের নৈপুণ্যে শাখতার দোনেৎস্ককে ৫-০ গোলে উড়িয়ে ইউরোপা লিগের ফাইনালে উঠেছে ইন্টার মিলান।

শেষ ষোলোতে গেটাফেকে ২-০ এবং কোয়ার্টার ফাইনালে বেয়ার লেবারকুসেনের বিপক্ষে ইন্টারের জয় ছিল ২-১ ব্যবধানে। আর সেমিফাইনালে কি না করল আগের দুই ম্যাচের সম্মিলিত গোলের চেয়েও একটি বেশি। শাখতারকে নিয়ে রীতিমতো ছেলেখেলা করেছেন লাউতারো মার্টিনেজ, রোমেলু লুকাকুরা।

সোমবার রাতে জার্মান ক্লাব ডুসেলডর্ফের মাঠে শাখতারের জালে দুইটি করে গোল করেছেন মার্টিনেজ ও লুকাকু। অন্য গোল এসেছে দানিলো দ্রাম্বোসোর পা থেকে। আগামী শুক্রবার দিবাগত রাতে ইউরোপা লিগের রেকর্ড পাঁচবারের চ্যাম্পিয়ন সেভিয়ার বিপক্ষে শিরোপার লড়াইয়ে নামবে ইন্টার।

সেমিফাইনাল ম্যাচটিতে প্রথমার্ধে তারা করেছে একটি মাত্র গোল। বাকি চার গোল হয়েছে দ্বিতীয়ার্ধে, আরও নির্দিষ্ট করে বললে ৬৪ থেকে ৮৪- এই বিশ মিনিটের মধ্যে। শাখতারের ওপর বইয়ে দেয়া বিশ মিনিটের ঝড়েই ফাইনালের টিকিট নিশ্চিত হয়ে গেছে ইন্টারের।

ম্যাচের ১৯ মিনিটে গোলের খাতা খোলেন আর্জেন্টিনার উদীয়মান তারকা লাউতারো মার্টিনেজ। শাখতারের ভুল পাসের কল্যাণে বল পেয়ে যান নিকোলো বারেল্লা। তার কাছ থেকে আসা ক্রসে দারুণ এক হেডে জালে বল জড়ান মার্টিনেজ। বাকি গোলের জন্য অপেক্ষা করতে হয় দ্বিতীয়ার্ধের।

বিরতির পর সেই ১৯ মিনিটের সময় গোল করেন দ্রাম্বোসো। তার গোলটিও ছিল হেডে, বল এসেছে কর্নার কিক থেকে। দশ মিনিট পর নিজের দ্বিতীয় গোল করেন মার্টিনেজ। ডি-বক্সের সামনে পাওয়া বলটি জালে জড়াতে খুব বেশি কিছু করতে হয়নি এ আর্জেন্টাইন তরুণকে।

এরপরের গল্পটা রোমেলু লুকাকুর। ইউরোপা লিগে টানা গোল করার রেকর্ডটা দশ ম্যাচে উন্নীত করেন ৭৮ মিনিটের মাথায়। এর পাঁচ মিনিটের মধ্যে নিজের দ্বিতীয় ও ম্যাচের পঞ্চম গোলটিও করেন এ বেলজিয়ান ফরোয়ার্ড। সুবাদে সহজ জয় পায় ইন্টার মিলান।