ভারতে ধর্ষণের পর শিরশ্ছেদ

বৃহস্পতিবার, জানুয়ারি ১০, ২০১৯

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ভারতের বিহার রাজ্যের গয়ায় এক কিশোরীর মুণ্ডবিহীন দেহ উদ্ধার করা হয়েছে। ওই কিশোরীর বয়স ১৬ বছর। পরিবারের সদস্যরা বলছেন, ধর্ষণের পর তার ধর থেকে মাথা আলাদা করার পর মুখ অ্যাসিডে পুড়িয়েছে দুর্বৃত্তরা।

পুলিশ বলছে, এটি অনার কিলিংয়ের ঘটনা। পুলিশের বিরুদ্ধে বিষয়টি নিয়ে অবহেলার অভিযোগ তুলে ধর্ষকদের দ্রুত গ্রেফতারের দাবিতে বিক্ষোভ করেছে স্থানীয় জনগণ।

স্থানীয়রা দাবি করেন ২৮ ডিসেম্বর নিখোঁজ হয় ওই কিশোরী। ৬ জানুয়ারি বাড়ির কাছে তার পচাগলা দেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

গয়ার পুলিশ কর্মকর্তা রাজীব মিশ্র বলেন, কিশোরীর মা ও বোন তাদের জানান, নিখোঁজ হওয়ার তিনদিন পর ৩১ ডিসেম্বর সে বাড়ি ফেরে। সেদিন রাতেই পরিবারের পরিচিত এক ব্যক্তির সঙ্গে রাত ১০টার দিকে বাইরে পাঠিয়ে দেন তার বাবা।

ওই কিশোরীকে ধর্ষণ ও খুনের সঙ্গে ওই ব্যক্তির সংশ্লিষ্টতা আছে কি-না তা জানতে তাকে আটক করা হয়েছে। তবে গয়ার এই কিশোরী হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে ওই ব্যক্তি জড়িত নন বলে দাবি করেছেন।

পুলিশ বলছে, মোবাইলের কল লিস্ট যাচাইয়ের পর সন্দেহভাজন ধর্ষকের সঙ্গে আটক ব্যক্তির যোগাযোগের প্রমাণ পাওয়া গেছে। সূত্র : এনডিটিভি।