নওগাঁয় বৈদ্যুতিক মিটার চুরি চক্রের মূল হোতা সহ আটক ৩

বুধবার, জানুয়ারি ৯, ২০১৯

তানভীর চৌধুরী, নওগাঁ (পত্নীতলা) প্রতিনিধি : নওগাঁর পত্নীতলায় বিএমডিএ-এর বিদ্যুৎ চালিত গভীর নলকুপের বৈদ্যুতিক মিটার চুরির সংঘবদ্ধ চক্রের মূল হোতা জাহান আলী ওরফে বাবুল হোসেন বাবলু সহ ৩জনকে সোমবার ও মঙ্গলবার রাতে পৃথক পৃথক অভিযান চালিয়ে আটক করেছে পুলিশ। এ নিয়ে ঐ চক্রের মোট ৪জন আটক হলো পুলিশের হাতে বলে বুধবার জানিয়েছেন থানার অফিসার ইনচার্জ পরিমল কুমার চক্রবর্তী।

আটককৃতরা হলো বগুড়ার আদমদিঘী বড় আখিড়া গ্রামের ছহীর উদ্দীনের ছেলে বৈদ্যুতিক মিটার চুরির সংঘবদ্ধ চক্রের মূল হোতা জাহান আলী ওরফে বাবুল হোসেন বাবলু (৪৪), পত্নীতলা উপজেলার গোপীনগর এলাকার আঃ সালামের ছেলে নজিপুর বাসস্ট্যান্ড এলাকার মোবাইলের সিম বিক্রেতা রুবেল হোসেন (২৫) ও চকভবানী এলাকার মমতাজ উদ্দীনের ছেলে হেদায়েত উল্লাহ (৩১)।

জানাগেছে, গত কয়েক মাসে উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় বিএমডিএ’র বিদ্যুৎ চালিত নলকুপের প্রি-পেইড মিটার গুলো হঠাৎ করেই চুরি হতে শুরু করে। তবে চোরেরা সু-কৌশলে পরবর্তীতে ঐসব কৃষকদের সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করে বিকাশের মাধ্যমে মোটা অঙ্কের টাকা দাবী করে মিটার ফেরৎ দেয়ার আশ্বাস দিলে কৃষকরা বড় অঙ্কের টাকার বিনিময়ে তাদের চুরি যাওয়া মিটার গুলো ধান ক্ষেত থেকে কেউ কেউ ফেরৎ পেয়েছে বলেও জানাগেছে। এতে করে এলাকায় কৃষকদের মাঝে আতঙ্কের সৃষ্টি হয়।

এঘটনায় উপজেলার কাঁটাবাড়ি এলাকার মৃত মোসলেম উদ্দীনের ছেলে জহুরুল ইসলাম তার মাঠের দুটি মিটার চুরি যাওয়ার ব্যাপারে বিকাশ নং সহ পত্নীতলা থানায় একটি মামলা দায়ের করে। মামলা নং- ০২, তাং- ০১/১১/২০১৮ ইং।

ঐ মামলার প্রেক্ষিতে থানা পুলিশ তদন্তের মাধ্যমে ১নভেম্বর-২০১৮ রাতেই উপজেলার গাহন গ্রামের মিস্টার (৪৫) কে তার বাড়ি থেকে আটক করে। আটক মিস্টারের তথ্য অনুযায়ী পত্নীতলা উপজেলা গেট সংলগ্ন একটি মেস থেকে চুরি যাওয়া সরঞ্জামাদি উদ্ধার করে পুলিশ। এসময় জাহান আলী পালিয়ে যায়।

পরবর্তীতে ৭ জানুয়ারী-২০১৯ সোমবার সন্ধ্যায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার পত্নীতলা সার্কেল রফিকুল ইসলাম ও অফিসার ইনচার্জ পরিমল কুমার চক্রবর্তীর নেতৃত্বে এসআই শাহাদত হোসেন সহ সঙ্গিয় ফোর্স গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে পাশ্ববর্তী সাপাহার উপজেলার মাছ বাজার এলাকা থেকে ঐ সংঘবদ্ধ চক্রের মূল হোতা জাহান আলীকে আটক করে।

আটকের সময় জাহান আলীর কাছ থেকে ৬টি ডিপ টিউবয়েলের বৈদ্যুতিক মিটার, ৯টি কাঁচি, ২ প্যাকেট পলিথিন, রশি, কাগজ পত্র ও ২টি মোবাইলসেট উদ্ধার করে পুলিশ। জাহান আলীর তথ্যমতে তার অপর সহযোগী সাপাহার উপজেলার বাহাপুর এলাকার মৃত আঃ জব্বারের ছেলে আনিছুর রহমান (৪৫) এসময় পালিয়ে গেলেও পরবর্তীতে মঙ্গলবার রাতে নজিপুর বাসস্ট্যান্ড এলাকা থেকে মোবাইলের সিম বিক্রেতা রুবেল হোসেন (২৫) ও হেদায়েত উল্লাহকে (৩১) আটক করে পুলিশ।

এব্যাপারে পত্নীতলা থানার অফিসার ইনচার্জ পরিমল কুমার চক্রবর্তী জানান, ঐ সংঘবদ্ধ চক্রের মূল হোতা জাহান আলী দীর্ঘদিন পলাতক ছিল। প্রযুক্তিগত তদন্তের মাধ্যমে পুলিশ অভিযান চালিয়ে মিটার চুরির সংঘবদ্ধ চক্রটির এই মূল হোতা জাহান আলী সহ অন্য ৩জনকে আটক করা হয়েছে। আটক জাহান আলীর বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় একাধিক মামলা রয়েছে। পুলিশি অভিযান অব্যাহত আছে এবং পলাতক আনিছুর এলাকার একজন বিখ্যাত গরু চোর।