মন্ত্রিত্ব নিয়ে দলে ‘অসন্তোষ’ নেই: কাদের

সোমবার, জানুয়ারি ৭, ২০১৯

ঢাকা; আওয়ামী লীগের সরকারের এবারের মন্ত্রীর তালিকা থেকে একাধিক হেভিওয়েট বাদ পড়ায় দলে অসন্তোষ নেই বলে জানিয়েছেন দলটির সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেছেন, ‘একজন মন্ত্রী থাকবেন, তার বদলে আরেকজন আসবেন এটা স্বাভাবিক প্রক্রিয়া। এটা নিয়ে অসন্তোষের কিছু নেই।’

সোমবার (৭ জানুয়ারি) সচিবালয় সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আওয়ামী লীগ অনেক বড় দল। এখানে একজনের জন্য আরেক জনকে জায়গা ছেড়ে দিতে হয়। এটাই তো স্বাভাবিক। এনিয়ে দলের মধ্যে কোনো অসন্তোষ নেই। এটা গণতন্ত্র চর্চার অংশ।’

এ প্রসঙ্গে তিনি আওয়ামী লীগ কাউন্সিলের উদ্ধৃতি তুলে ধরে বলেন, ‘প্রয়োজনে আমাদের সাংগঠনিক অবস্থানেরও পরিবর্তন আনা হয়। কাউন্সিল হয়। সেখানে নতুন নেতৃত্ব বাছাই করে কাউন্সিলররা। এটা আওয়ামী লীগের অভ্যন্তরীণ গণতন্ত্র চর্চার অংশ। এমন প্রেকটিস আমরা করে থাকি।’

তবে, নতুন মন্ত্রিসভাকে এখনই চমক মানতে নারাজ আওয়ামী লীগের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ সাংগঠনিক এ নেতা। তিনি বলেন, ‘আগে যারা ছিলেন সফলতার সঙ্গে কাজ করেছেন। এখন যারা আসছে তারা কেমন কাজ করবেন, সেটা দেখা যাক। তাদের কাজই বলে দেবে এটা চমক কিনা।’

উল্লেখ্য, একাদশ জাতীয় নির্বাচনে নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাওয়ার পর সংসদ সদস্যদের শপথ শেষে অপেক্ষা নতুন মন্ত্রিসভার শপথের। গতকালই প্রকাশ পেয়েছে কারা থাকছেন মন্ত্রিপরিষদে।

রবিবার মন্ত্রিপরিষদ সচিব শফিউল আলম সচিবালয়ে সংবাদ সম্মেলনে নতুন মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রী-উপমন্ত্রীদের নাম ঘোষণা করেন। তাতে ২৪ জন পূর্ণমন্ত্রী, ১৯ জন প্রতিমন্ত্রী ও তিনজন উপমন্ত্রী স্থান পেয়েছেন। আর বাদ পড়েছেন দশম সংসদের মন্ত্রিসভার ৩৬ জন সদস্য। এর মধ্যে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম মৃত্যুবরণ করা তাকে ৩৬ জনের তালিকায় ধরা হয়নি।

বাদ পড়ার তালিকায় রয়েছেন- অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত, শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু, বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ, কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী, স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম, স্থানীয় সরকার মন্ত্রী খন্দকার মোশাররফ হোসেনসহ হেভিওয়েটরা। এছাড়া, নতুন মন্ত্রিসভায় জায়গা হয়নি মহাজোটের শরিক ১৪ দলের কোনো নেতার।