কুষ্টিয়ায় আ.লীগের দুগ্রুপে সংঘর্ষ, ছাত্রলীগ নেতার বাবা নিহত

রবিবার, জানুয়ারি ৬, ২০১৯

কুষ্টিয়া : কুষ্টিয়া সদর উপজেলায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে এক ছাত্রলীগ নেতারা বাবা নিহত হয়েছেন। এঘটনায় আহত হয়েছেন বেশ কয়েকজন।

রবিবার (৬ জানুয়ারি) সকাল সাড়ে ৬টার দিকে উপজেলার পশ্চিম আব্দালপুর গ্রামে এই ঘটনা ঘটে।

নিহত ব্যক্তির নাম মইনুদ্দিন বিশ্বাস (৬০)। তিনি ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জুয়েল রানার বাবা।

স্থানীয় সূত্র, প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ জানায়, কয়েকদিনের পাল্টাপাল্টির হামলার ধারাবাহিকতায় তুচ্ছ একটি ঘটনাকে কেন্দ্র করে সকালে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তাফা ও একই ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলী হায়দারের কর্মী-সমর্থকদের সঙ্গে সংঘর্ষ শুরু হয়। এতে গুরুতর আহত হন মইনুদ্দিন। আহত মইনুদ্দিনকে সকাল সোয়া ৮টার দিকে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

মইনুদ্দিনের ছেলে ছাত্রলীগ নেতা জুয়েল রানা বলেন, ইউপি চেয়ারম্যান আলী হায়দার তাদের আত্মীয়। তার বাবা চেয়ারম্যানের পক্ষের লোক। সংঘর্ষের একপর্যায়ে তার বাবা গ্রামের বটতলা এলাকায় একা হয়ে পড়েন। প্রতিপক্ষের লোকজন তাকে কুপিয়ে হত্যা করে।

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে কুষ্টিয়ার পুলিশ সুপার (এসপি) এস এম তানভীর আরাফাত বলেন, আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে এই সংঘর্ষ হয়। বিপুলসংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। পরিস্থিতি এখন স্বাভাবিক রয়েছে।