রাজশাহীতে বিএনপি- আ’ লীগ সংঘর্ষে নিহত ১

রবিবার, ডিসেম্বর ৩০, ২০১৮

রাজশাহী : নির্বাচনকে কেন্দ্র করে রাজশাহীতে বিএনপি-আওয়ামী লীগের সংঘর্ষে এক আওয়ামী লীগ কর্মী নিহত হয়েছেন। রোববার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে রাজশাহীর মোহনপুরের পাইকপাড়া পাকুড়িয়া উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত ওই ব্যক্তির নাম মেরাজুল ইসলাম (২২)। তিনি পাকুড়িয়া এলাকার আবদুস সাত্তারের ছেলে। রাজশাহী জেলা পুলিশের মুখপাত্র সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) আবদুর রাজ্জাক খান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, সকালে মোহনপুরের পাকুড়িয়া উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে আধিপত্য বিস্তার কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগ এবং বিএনপি নেতাকর্মীদের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষ হয়। এ সময় প্রতিপক্ষের লাঠির আঘাতে মেরাজুল ইসলাম ঘটনাস্থলেই মারা যান।

মোহনপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মফিজ উদ্দিন কবিরাজ বলেন, বিএনপি নেতাকর্মীরা পূর্বপরিকল্পিতভাবে মেরাজুলকে হত্যা করেছে। বিনা উসকানিতেই তার ওপর হামলা চালানো হয়। তার মাথায় বাঁশের আঘাত লাগার ফলে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয়।

মোহনপুর থানার ওসি আবুল হোসেন জানান, নিহত মেরাজুলের মরদেহ উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজের মর্গে পাঠানো হয়েছে। ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের আটক করতে পুলিশের অভিযান চলছে। ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

এদিকে রাজশাহী-১ (গোদাগাড়ী-তানোর) আসনের গোদাগাড়ী উপজেলার মাটিকাটায় বিএনপি নেতাকর্মীদের হামলায় আওয়ামী লীগ নেতা ও ইউপি সদস্য সেতাবুর রহমান আহত হয়েছেন। তাকে গোদাগাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ভর্তি করা হয়েছে।

আর বেলা সাড়ে ১২টার দিকে গোদাগাড়ী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবদুর রশিদ আহত হয়েছেন। উপজেলার কুমরপুর মাদ্রাসা কেন্দ্রে বিএনপি নেতাকর্মীরা তার ওপর হামলা চালায়। তাকে প্রেমতলী স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ভর্তি করা হয়েছে।

এ ছাড়া তানোর উপজেলার চাপড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, বিরস্থইল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, পারিশো-দুর্গাপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, কৃষ্ণপুর উচ্চবিদ্যালয়, তানোর পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে সংঘর্ষের সংবাদ পাওয়া গেছে।