সাড়া পাচ্ছে ফ্ল্যাট নম্বর ‘ডি-টুয়েন্টি’ (ভিডিও)

শনিবার, ডিসেম্বর ২৯, ২০১৮

বিনোদন ডেস্ক : নাট্যকার ও অভিনেতা বৃন্দাবন দাস এর আগে যতগুলো ধারাবাহিক নাটক রচনা করেছেন তার সবই ছিল গ্রামকেন্দ্রিক জীবনের গল্পের ধারাবাহিক। এবারই প্রথম তিনি শহুরে জীবনের গল্প নিয়ে দীর্ঘ ধারাবাহিক নাটক রচনা করেছেন। নাটকের নাম ‘ডি-টুয়েন্টি’। এটি পরিচালনা করেছেন সাগর জাহান।

সরকারি কর্মচারিদের আবাসিক কলোনির ডি-ক্যাটাগরির দালানের একটি ফ্ল্যাট নম্বর ‘ডি-টুয়েন্টি’। ফ্ল্যাটটি বর্তমানে মূলত একটি মেস। মাত্র দুটি কামরা, একটি বাথরুম, একটি ছোট রান্নাঘর। একচিলতে ব্যালকনির এই সরকারি কোয়ার্টারটি যার নামে বরাদ্দ তিনি সাবলেট ভাড়া দিয়ে বাইরে বসবাস করেন।

ডি-টুয়েন্টির এই ছোট ফ্ল্যাটটিতে বেশকিছু মানুষ গাদাগাদি করে বাস করে। সবাই স্বল্প আয়ের মানুষ। দুই একজন ছাত্রও আছে। এরা সবাই পাবনা জেলার বাসিন্দা। এদের মধ্যে প্রচণ্ড এলাকার টান। অন্যদিকে জেবুন্নেসা পাবনার মানুষকে একদমই সহ্য করতে পারে না। তার কাছে ডি-টুয়েন্টির বাসিন্দারা চক্ষুশূল।

একদিন অদ্ভুত বেশভূষার যুবক মেগা ও ঘেগা এসে হাজির হয় ডি-টুয়েন্টিতে। দুজনই এদের পূর্ব পরিচিত এবং অবশ্যই পাবনা অঞ্চলের। রহস্যময় চরিত্রের অধিকারী ঘেগা নতুন নতুন কর্মকাণ্ড শুরু করে। এ নিয়ে নতুন করে শুরু হয় জেবুন্নেসার সাথে ডি-টুয়েন্টির বাসিন্দাদের স্নায়ুযুদ্ধ। এসব নানা ঘটনাকে উপজীব্য করে এগিয়ে চলে ‘ডি-টুয়েন্টি’ ধারাবাহিকের গল্প।

গত ৮ ডিসেম্বর থেকে প্রতি শুক্র, শনি ও রোববার রাত ৯টা ২০ মিনিটে আরটিভিতে প্রচারিত শুরু হয়েছে এই ধারাবাহিকের। টিভি পর্দার পাশপাশি আরটিভির ইউটিউব চ্যানেলেও বেশ সাড়া পাচ্ছে এটি। ২৯ ডিসেম্বর পর্যন্ত ‘ডি-টুয়েন্টি’র ৯টি পর্ব প্রচার হয়েছে।

এতে বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন চঞ্চল চৌধুরী, আনিকা কবির শখ, ফজলুর রহমান বাবু, শাহনাজ খুশি, আরফান আহমেদ. এ কে আজাদ, প্রাণ রায়, ওয়ালিউল হক রুমী, জামিলসহ অনেকে।