জানাজায় গিয়ে আওয়ামী লীগের অপপ্রচারের শিকার বিএনপির প্রার্থী

শনিবার, ডিসেম্বর ২৯, ২০১৮

নিজস্ব প্রতিবেদক : জানাজায় গিয়ে আওয়ামী লীগের কারসাজিতে বিপাকে পড়েছে বরিশাল ৪ আসনের বিএনপির প্রার্থী জে এম নুরুর রহমান জাহাঙ্গীর। পুলিশের ধরপাকড়, ক্ষমতাসীনদের হামলা মামলার পরেও জীবন বাজি রেখে নির্বাচনী এলাকায় গিয়ে শুক্রবার (২৮ ডিসেম্বর) আওয়ামী লীগের অপপ্রচারের শিকার হন তিনি।

মুঠোফোনে এ নেতা জানায়,আওয়ামী লীগ তার বিরুদ্ধে গনভোটে হারার ভয় পেয়ে হামলা মামলা করেও দমাতে না পেরে মিথ্যা অপপ্রচার চালাতে শুরু করেছে। তারা জানাযার নামাজে যাওয়া ঘটনাকে ইস্যু বানিয়ে বিএনপি দলীয় নেতাকর্মীদের মনোবল ভেঙে দেয়ার চেষ্টা চালাচ্ছে। অপর দিকে মিথ্যা ভাইরাস ছড়িয়ে গনভোট ডাকাতি করে পার পাওয়ার পন্থা অবলম্বন করছেন।

যা তার দলীয় নেতাকর্মীরা মেনে নেবেনা এবং আওয়ামী লীগের কারসাজিতে ছেড়ে দিবেন না বলে আত্মবিশ্বাস প্রকাশ করেন তিনি। জাহাঙ্গীর আরও বলেন, প্রচারণায় গেলে ১৯ ডিসেম্বর তার ভেঙে দেয় আওয়ামী সন্ত্রাসীরা। কিছুটা সুস্থ হয়ে প্রচার করতে গেলে জীবন নাশের হুমকি দিয়ে তাড়িয়ে দেয়। পুনরায় জীবন বাজি রেখে শুক্রবার এলাকায় গেলে তারা অপপ্রচার চালাতে শুরু করেন।

শুক্রবার জুমা নামাজ শেষে মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলার উলানিয়া বাজার এলাকায় স্থানীয় সমাজ সেবক ডা. মোয়াজ্জেম হোসেন এর নামাজে জানাযায় অংশ নেন ঐক্যফ্রন্ট মনোনিত বিকল্প ধারার প্রার্থী জেএম নুরুর রহমান জাহাঙ্গীর।একই জানাযা নামাজে অংশ নিতে যান আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের প্রার্থী পঙ্কজ নাথ।

জানাযা নামাজ শেষে আ’লীগের প্রার্থী পঙ্কজ নাথ স্থানীয় উলানিয়া বাজারে ও জাহাঙ্গীর দুজনের কুশলাদি বিনিময় করেন এবং চা চক্রে মিলিত হন। বিদায় নিতে চাইলেও জাহাঙ্গীরকে বিদায় না দিয়ে তার সামনে বসেই নৌকা প্রতীকের লিফলেট বিতরণ করেন পঙ্কজ দেবনাথ। এসময় ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী নুরুর রহমান জাহাঙ্গীরের ছবি তুলে ফেইসবুকে ছড়িয়ে দেয় আওয়ামী লীগ সদস্যরা।

তারা ফেইসবুকে ওই ছবিকে ভাইরাস বানিয়ে জাহাঙ্গীর নৌকার প্রার্থীর সাথে হাত মিলিয়েছেন বলে অপপ্রচার চালিয়ে ঐক্য ফ্রন্টের নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙার চেষ্টা করেন তারা। পুলিশের গ্রেপ্তার আতংকে ক্ষমতাসীনদের হামলার ভয়ে গা ঢাকা দিয়ে নেতাকর্মীরা সাথে না থাকায় অসহায় হয়ে জাহাঙ্গীরের নিরব ভুমিকা পালন করা ছাড়া কোন উপায় ছিলনা।

এব্যাপারে তিনি সাংবাদিকদের মাধ্যমে এলাকাবাসী ও বিএনপি নেতাকর্মীদের নিকট আহবান জানিয়ে বলেন, জীবন গেলেও রাজনীতি ও গনতন্ত্র হত্যাকারী আওয়ামী লীগের সাথে আতাত করার লোক তিনি নন।

আওয়ামী লীগ গনভোটে হারার সম্ভাবনা দেখে ভোট ডাকাতি করার পরিকল্পনায় এ ধরনের অপপ্রচার চালাচ্ছে। তাদের এ সুযোগ দেয়া যাবেনা। ৩০ তারিখ ধানের শীষ প্রতীকে ভোট দিয়ে এর প্রতিবাদ করার জন্য নেতাকর্মীর নিকট আহবান জানান তিনি।