নির্বাচনে ১৬ কোটি মানুষের বিজয় হবে: ড. কামাল

বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ২৭, ২০১৮

ঢাকা : আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কোনো দল নয়, ১৬ কোটি মানুষের বিজয় বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের আহ্বায়ক ড. কামাল হোসেন। বৃহস্পতিবার (২৭ ডিসেম্বর) বিকেল ৪টায় পুরানা পল্টনের জামান টাওয়ারস্থ জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের কার্যালয়ে ঐক্যফ্রন্টের বৈঠক শেষে তিনি এ মন্তব্য করেন।

ড. কামাল হোসেন বলেন, ‘কোনো দলের নয়, নির্বাচনে ১৬ কোটি মানুষের বিজয় হবে। একদিকে ১৬ কোটি মানুষ, অন্যদিকে অহঙ্কারী কিছু মানুষ, যারা নিজেদের দেশের মালিক মনে করে।

তিনি বলেন, ‘ঐক্যফ্রন্ট ক্ষমতায় গেলে দলীয়করণ করবে না, দলীয়করণ থেকে মুক্ত হতেই আমরা এক হয়েছি। দলীয়করণ মানে জমিদারি, ভোট দিয়ে এ থেকে মুক্ত হবো। ধানের শীষে ভোট দিলে এ থেকে মুক্ত হবেন। ধানের শীষ দলের নয়, সবার ঐক্যের প্রতীক ‘

জনগণ পরিবর্তনের পক্ষে জাতিয়ে তিনি বলেন, ‘নির্বাচন নিয়ে জনমনে ব্যাপক আগ্রহ দেখেছি। জনগণ এখন পরিবর্তনের পক্ষে। গণতন্ত্রকে খাটো করে উন্নয়নের কথা ৫০ বছর পুরনো। উন্নয়নে গণতন্ত্র আর মানবাধিকার থাকতে হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘পরিবর্তনের পক্ষে সারাদেশে বিপুল সাড়া পড়েছে। এই নির্বাচন শহীদদের স্বপ্ন বাস্তবায়নের। আমাদের বাস্তব ভিত্তি শহীদদের স্বপ্ন।’

জনগণকে সাহস করে ভোট দিতে যাওয়ার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, ‘নির্বাচনই নিশ্চিত করবে দেশের মালিকানা জনগনের। জনগনের ভোট পেলে সরকারের তো তিন নম্বরি কাজ করার দরকার নেই। সাহস করে সবাই মাঠে থাকুন।’

ড. কামাল হোসেনের সভাপতিত্বে বৈঠক আরও উপস্থিত ছিলেন বিএনপি মহাসচিব ও ঐক্যফ্রন্টের মুখপাত্র মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি বঙ্গবীর আবদুল কাদির সিদ্দিকী, গণস্বাস্থ্যের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, গণফোরামের কার্যকরী সভাপতি সুব্রত চৌধুরী, নাগরিক ঐক্যের নেতা শহিদুল্লাহ কায়সার, গণফোরামের প্রেসিডিয়াম সদস্য জগলুল হায়দার আফ্ররিক প্রমুখ।