সেনাবাহিনীকে বিতর্কিত করার চেষ্টা করছে ঐক্যফ্রন্ট: ১৪ দল

বুধবার, ডিসেম্বর ২৬, ২০১৮

ঢাকা : আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট ও বিএনপি দেশপ্রেমিক সেনাবাহিনীকে বিতর্কিত করার চেষ্টা করছে বলে অভিযোগ করেছেন বাংলাদেশের সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক ও ১৪ দলীয় জোটের নেতা দিলীপ বড়ুয়া।

বুধবার (২৬ ডিসেম্বর) বিকেলে রাজধানীর আগারগাঁওয়ের নির্বাচন ভবনে কমিশন সচিব হেলালুদ্দীন আহমদের সঙ্গে সাক্ষাত শেষে সাংবাদিকদের একথা বলেন তিনি।

ঐক্যফ্রন্ট নির্বাচনকে প্রশ্নব্দ্ধি করার ষড়যন্ত্র করছে বলে ইসি সচিবের কাছে দেয়া অভিযোগপত্রে উল্লেখ করা হয়। এছাড়া বিএনপি ও ঐক্যফ্রন্টের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার জন্যও আবেদন জানায় প্রতিনিধি দল।

দিলীপ বড়ুয়া বলেন, ‘একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন যাতে উৎসবমুখর ও নিরাপদ পরিবেশে অনুষ্ঠিত হয় সেজন্য বিএনপি ও ঐক্যফ্রন্টের দাবি অনুযায়ী নির্বাচন কমিশন সেনাবাহিনী মোতায়েন করেছে।

এখন সেই সেনাবাহিনীকে সুক্ষ্মভাবে প্রশ্নবিদ্ধ করার চেষ্টা করছেন তারা। আসলে বিএনপি ও ঐক্যফ্রন্ট নেতারা বার বার সব বিষয়ে অভিযোগ তুলে নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করতে চায়। এর মাধ্যমে নির্বাচন পরিবর্তী সময়েও সংকট সৃষ্টির উদ্দেশ্য রয়েছে তাদের। এসব বিষয়ে ইসির সতর্কতা অবলম্বন করা প্রয়োজন।’

তিনি বলেন, ‘আমরা ইসিকে বলেছি, কেউ যাতে দেশপ্রেমিক সেনাবাহিনীকে প্রশ্নবিদ্ধ করতে বিবৃতি বা উদ্দেশ্য প্রনোদিত বক্তব্য না দিতে পারে সেজন্য কমিশন তার অংশীজন রাজনৈতিক দলগুলোকে নির্দেশনা দিতে পারে।’

এক প্রশ্বের জবাবে তিনি বলেন, ‘আমি এক’শ ভাগ গ্যারান্টি দিয়ে বলতে পারি- ৩০ ডিসেম্বর নির্বাচন হবে এবং এই নির্বাচন শান্তিপূর্ণ হবে।’