বিএনপি-ঐক্যফ্রন্ট নির্বাচন বানচালে ষড়যন্ত্রে নেমেছে: আ.লীগ

মঙ্গলবার, ডিসেম্বর ২৫, ২০১৮

ঢাকা : বিএনপি-ঐক্যফ্রন্ট একাদশ সংসদ নির্বাচন বানচালের ষড়যন্ত্রে নেমেছে বলে অভিযোগ তুলেছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ।

দলটি বলছে, বিএনপি-ঐক্যফ্রন্টের কথার কোনও ঠিক ঠিকানা নেই। তাদের মুভমেন্ট ও কর্মকাণ্ডে নির্বাচনকে বানচাল করার বিষয়টি লক্ষ্য করা যাচ্ছে।

মঙ্গলবার (২৫ ডিসেম্বর) রাতে নির্বাচন কমিশনের সঙ্গে সাক্ষাত শেষে আওয়ামী লীগের প্রতিনিধি দলের প্রধান ও দলের কেন্দ্রীয় নেতা আক্তারুজ্জামান এ কথা বলেন।

‘সরকার ও কমিশন নির্বাচন বানচাল করতে যাচ্ছে’ জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের এমন দাবির বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে আক্তারুজ্জামান বলেন, ‘তারা (বিএনপি-ঐক্যফ্রন্ট) বিচলিত ও অস্থির। কোন সময় কোনটা বলেন তার ঠিক ঠিকানা নেই। একবার বলছেন ভোট ছেড়ে যাবো না। আবার বলছেন ভোট করতে পারবো কিনা জানিনা। একবার সন্তুষ্টি প্রকাশ করে নির্বাচন কমিশনকে ধন্যবাদ দিচ্ছেন আবার কমিশনের নিরপেক্ষতা নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন। উনাদের মুভমেন্ট ও কর্মকাণ্ডে নির্বাচনকে বানচাল করা, ক্ষতিগ্রস্ত বা প্রশ্নবিদ্ধ করার বিষয়গুলি লক্ষ্য করা যাচ্ছে।’

বিএনপিকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, ‘নির্বাচনের আগেও তারা নয়াপল্টনে বসে এই ধরনের অভিযোগ করে আসছে। তাদের বক্তব্যগুলোর কোনও ভিত্তি না থাকার কারণে মানুষের কাছে গ্রহণযোগ্য হচ্ছে না। তারা রাজনৈতিক প্রপাগান্ডা হিসেবে নিজেরাই প্লট করে নির্বাচনে আগে বিশেষ পরিস্থিতি সৃষ্টি করতে চাচ্ছে।’

তফসিলের পর মহাজোটের ৫ জন নেতাকর্মীকে হত্যা করা হয়েছে উল্লেখ করে আওয়ামী এই নেতা বলেন, ‘আমরা যে মারা যাচ্ছি, আমাদের কর্মীরা যে আহত হচ্ছে তার এভিডেন্স দেখিয়েছি। কিন্তু বিএনপি তাদের কর্মকাণ্ড প্রেসরিলিজ বা মুখের বক্তব্যের সীমাবদ্ধ। তারা অভিযোগের প্রমাণ আপনাদের সামনে কতটুকু উপস্থাপন করতে পারছে তার সাক্ষী আপনারাই।’

নির্বাচনকে কেন্দ্র করে কালো টাকা ছড়ানোর অভিযোগ তুলে আক্তারুজ্জামান বলেন, ‘বাংলাদেশে দুবাই থেকে ১৫০ কোটি টাকা মুভমেন্ট হচ্ছে। ৮ কোটি টাকাসহ মতিঝিলে র‌্যাব একজনকে গ্রেফতার করেছে। সেই কারণে উদ্বেগ প্রকাশ করে কমিশনকে অনুরোধ করেছি অস্ত্রের মুভমেন্ট, টাকার মুভমেন্ট এসব বিষয়ে স্ব স্ব প্রতিষ্ঠান যেন আরো বেশি মনিটর করে। সজাগ সতর্ক থাকে। জনগণের নিরাপত্তার জন্য ও শান্তিপূর্ণ সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য।’

সিলেট, নারায়ণগঞ্জ, চট্টগ্রাম, চাঁদপুর, নীলফামারী, সাতক্ষীরা জেলাসহ বিভিন্ন স্থানে জেলায় বিএনপি-জামায়াত সমর্থিত লোকেরা আওয়ামী লীগের নির্বাচনী কার্যালয় ভাঙচুর, অগ্নিসংযোগ, মিছিলে হামলা করেছে বলে ইসিকে জানিয়েছে দলটি।