পুলিশের গণগ্রেপ্তারের কারনে নির্বাচনী প্রচারনা ব্যহত হওয়ার দাবী সরওয়ারের

রবিবার, ডিসেম্বর ২৩, ২০১৮

ব‌রিশাল : পুলিশের গণগ্রেপ্তারের কারনে বিএনপি’র নির্বাচনী প্রচারনা করতে পারছেন না বলে অভিযোগ করেছেন বরিশাল সদর আসনে ঐক্যফ্রন্টের ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী ও বিএনপি’র কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির যুগ্ম মহাসচিব এ্যাডভোকেট মজিবর রহমান সরওয়ার।

রোববার (২৩ ডিসেম্বর) দুপুরে বরিশাল নগরের আগরপুর রোডে শহীদ আব্দুর রব সেরনিয়াবাত বরিশাল প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে এমন অভিযোগ করেছেন তিনি।

পাশাপাশি নির্বাচনী প্রচার-প্রচারনায় বাধা প্রদানের অভিযোগ তুলে তিনি বলেন, এমন পরিস্থিতি অব্যাহত থাকলে সুষ্ঠু নির্বাচনী পরিবেশ বজায় থাকা নিয়ে সংশয় রয়েছে।

সরওয়ার আরো বলেন, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন একটি গুরুত্বপূর্ন নির্বাচন। দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন হলেও সংলাপ ও সকল রাজনৈতিক দলের অংশগ্রহনে একটি সুষ্ঠু নির্বাচনের আশা ছিলো আমাদের। কিন্তু এখন দেখছি সরকারদলীয়রা ক্ষমতার অপব্যবহার করছে।

তিনি বলেন, শনিবার বরিশাল সদর উপজেলার চন্দ্রমোহনে আমার উঠান বৈঠকে যাওয়ার পথে নেহালগঞ্জ ফেরীঘাটে, ফেরি ও ট্রলার বন্ধ রাখা হয়, এমনকি নৌকা পর্যন্ত সেকল দিয়ে আটকে বন্ধ করে দেয় পুলিশ। উঠান বৈঠকে আসা নেতা-কর্মীদের বাঁসির হুইসেল দিয়ে এবং লাঠিচার্জ করে তাড়িয়ে দেয়। পাশাপাশি সেখান থেকে ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতিকেও গ্রেফতার করা হয়। শুধু তাইনয় বরিশালে এ পর্যন্ত ৭২ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। রাতে নেতা-কর্মীদের বাসায় গিয়ে ভয়ভীতি দেখানো হচ্ছে।

তিনি বলেন, এখন আবার মধ্যরাতে আওয়ামীলীগের কার্যালয়ে আগুন দিয়ে আমাদের নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে মামলা দেয়া হচ্ছে। ঘটনা এক জায়গায় হলেও সারাবরিশালের নেতা-কর্মীদের সে মামলায় আসামী করা হচ্চে। এসব বিষয়ে আমরা একাধিকবার রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে অভিযোগ দিয়েছি। প্রধান নির্বাচন কমিশনে চিঠি পাঠিয়েছি। কিন্তু তার পরেও কোন প্রতিকার পাচ্ছেন না বলে অভিযোগ করেন তিনি।

তারা (আওয়ামীলীগ) এতটাই উন্নয়ন করলে জনগনকে ভয় পাচ্ছে কেন এমন প্রশ্ন তুলে মজিবর রহমান সরোয়ার বলেন, নির্বাচনের অল্প কিছুদিন বাকি, যাতে সুষ্ঠু নির্বাচন হয় তার জন্য নির্বাচন কমিশন ও রিটার্নিং কর্মকর্তার প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

তিনি আশা প্রকাশ করে বলেন, ইতিমধ্যে বিজিবি নেমেছে। সোমবার থেকে সেনা বাহিনী মাঠে নামছে। আমরা আশা করি সেনা বাহিনী পক্ষপাতিত্ব না করে নিরপেক্ষ ভুমিকা পালন করবে। ৩০ ডিসেম্বর একটি অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনে একটি উৎসব মুখর পরিবেশে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবে।

এসময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি কেন্দ্রীয় কমিটির বরিশাল বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক এ্যাডভোকেট বিলকিস আক্তার জাহান শিরিন , বরিশাল জেলা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট সিদ্দিকুর রহমান লিংকন, সাবেক সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট নাজিম উদ্দিন আলম পান্না, এ্যাডভোকেট মেহেদী হাসান মেবুল, এ্যাডভোকেট আবুল কালাম আজাদ, এ্যাডভোকেট অসীম কুমার বাড়ৈ, এ্যাডভোকেট মামুন হোসেন প্রমুখ।

এদিকে সংবাদ সম্মেলনে বরিশাল বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক এ্যাডভোকেট বিলকিস আক্তার জাহান শিরিন বলেন, বরিশাল বিভাগের মধ্যে ভোলা, পিরোজপুর-ঝালকাঠি ও বরিশালের অবস্থা সবথেকে বেশি ভয়াবহ। এসব এলাকায় প্রার্থীদের প্রচারনায় বাধা দেয়ার পাশাপাশি হামলা-মামলাসহ নেতা-কর্মীদের গ্রেফতার চলছে। আর গ্রেফতার আতঙ্ক বরিশালের সব জেলায় ই ছড়িয়ে পরেছে।