আইপিএলের ইতিহাসে দামি ১০ ক্রিকেটার

রবিবার, ডিসেম্বর ২৩, ২০১৮

স্পোর্টস ডেস্ক: ক্লাব ফুটবলে যেমন ব্রাজিলিয়ান পোস্টার বয় নেইমার, একইভাবে ক্রিকেটের সবচেয়ে নামিদামি ঘরোয়া আসর আইপিলে বিশ্বের সবচেয়ে দামি খেলোয়াড়টির নাম বিরাট কোহলি। আইপিএলের ইতিহাসে এখনও কোনও তারকা কোহলিকে টেক্কা দিতে পারেননি। এ প্রতিবেদনে আইপিল ইতিহাসের সর্বোচ্চ দামি কিছু খেলোয়াড়ের তালিকা দেয়া হলো:

বিরাট কোহলি
২০১৮ সালে বেঙ্গালুরু তাকে কিনেছিল রেকর্ড ১৭ কোটি টাকা দিয়ে। এখনও পর্যন্ত এটাই যে কোনও ক্রিকেটারের জন্য টুর্নামেন্টের ঘোষিত সর্বোচ্চ মূল্য।

যুবরাজ সিংহ
এ বছরের নিলামে প্রথমবার কোনও দল না পাওয়া যুবরাজকে ২০১৫ সালে ১৬ কোটি দিতে তাকে কিনেছিল দিল্লি ডেয়ারডেভিলস।

রোহিত শর্মা
তালিকার তিন নম্বরে রয়েছেন হিটম্যান। টি২০ এবং একদিনের ম্যাচে ভারতের অন্যতম ভরসা রোহিত। ২০১৮ সালে রোহিতকে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স কিনেছিল ১৫ কোটি টাকায়।

এমএস ধোনি
দামের দিক থেকে ‘মিস্টার কুল’ খুব একটা পিছিয়ে নেই। ২০১৮ সালে চেন্নাই সুপার কিংস ১৫ কোটি দিয়ে কেনে ধোনিকে।

ঋষভ পন্থ
ধোনির শূন্যতা পূরণ করবেন বলে মনে করা হচ্ছে। দিল্লি ডেয়ারডেভিলস গত বছর ১৫ কোটিতে কিনেছিল বাঁহাতি পন্থকে।

বেন স্টোকস
আইপিএলের ইতিহাসে সবচেয়ে দামি বিদেশি ক্রিকেটার। ২০১৭ সালে এই অলরাউন্ডারটিকে সাড়ে ১৪ কোটিতে কিনেছিল পুনে।

দীনেশ কার্তিক
টি২০ ফরম্যাটের অন্যতম সফল ক্রিকেটার। বর্তমানে নাইটদের অধিনায়ক। ২০১৪ সালে কার্তিককে সাড়ে ১২ কোটিতে কিনেছিল দিল্লি।

ডেভিড ওয়ার্নার
গত বছর ডেভিড ওয়ার্নারকে সাড়ে ১২ কোটিতে কিনেছিল হায়দরাবাদ। যদিও বল বিকৃতি কেলেঙ্কারির জেরে ২০১৮-এর আইপিএলে খেলতে পারেননি তিনি।

স্টিভ স্মিথ
ওয়ার্নারের মতোই সম পরিমাণ টাকায় বিক্রি হয়েছিলেন স্মিথ। কিন্তু ওয়ার্নারের মতোই বল কেলঙ্কারির জেরে রাজস্থানের হয়ে একটি ম্যাচও খেলতে পারেননি প্রাক্তন অজি অধিনায়ক।

বরুণ চক্রবর্তী
৮টি দল নিয়ে এবারের আইপিএলে সর্বোচ্চ ৮ কোটি ৪০ লাখ রুপিতে বিক্রি হয়েছেন ‘রহস্যময়’ স্পিনার খ্যাতি পাওয়া বরুণ চক্রবর্তী। অবশ্য একই দাম দিয়ে পেস বোলার জয়দেব উনাদকাটকে কেনা হলেও তা নিয়ে সমালোচনা আছে।