সোনুর ‘টুইটারে বমি’র জবাব দিলেন সোনা!

শুক্রবার, ডিসেম্বর ২১, ২০১৮

বিনোদন ডেস্ক : জমে উঠেছে ভারতের দুই সংগীতশিল্পীর তর্ক। বিশিষ্ট সংগীতজ্ঞ অনু মালিকের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্তার অভিযোগ তুলেছিলেন শিল্পী সোনা মহাপাত্র, সে অনেক দিন হলো। সেই আগুনে ফের ঘি ঢেলেছেন জনপ্রিয় আরেক শিল্পী সোনু নিগম।

অনু মালিকের বিরুদ্ধে সোনা মহাপাত্র হেনস্তার অভিযোগ করেছিলেন মাইক্রো-ব্লগিং সাইট টুইটারে লিখে। ‘হ্যাশট্যাগ মি টু’ অভিযুক্ত অনুকে সমর্থন দিয়ে সোনু নিগম সেই অভিযোগকে বলেছেন ‘টুইটারে বমি’। শুধু তা-ই নয়, সরাসরি সোনার নাম না নিয়ে সোনু তাঁকে সম্বোধন করেছেন একজনের ‘স্ত্রী’ হিসেবে। এর জবাব দিয়েছেন এ গায়িকা।

বৃহস্পতিবার এক বিবৃতিতে সোনু নিগম বলেন, ‘সম্মানিত ওই মহিলা টুইটারে বমি করেছেন, যিনি একজনের স্ত্রী; তাঁকে আমার নিকটজন বলেই ভাবি, যদিও তিনি সেই সম্পর্কের কথা ভুলে গেছেন, শালীনতা মেনেই বলছি।’

জবাবে সোনা বলেছেন, সোনুকে যদি কেউ ‘কারো বাবা অথবা কারো স্বামী বা কারো পুত্র’ বলে ডাকতেন, তা তিনি প্রত্যাখ্যান করতেন।

সোনা মহাপাত্র বিয়ে করেছেন সুরকার রাম সমপাঠকে। ওম গ্রোন মিউজিকের কর্ণধার এই যুগল।

‘আপনি এখনো আমার কাছে ভারতের সেরা ধ্রুপদি শিল্পীদের একজন। গত দেড় দশক যতবারই আমাদের দেখা হয়েছে, ততবারই আমরা সুন্দর সময় কাটিয়েছি; কি ব্যক্তিগত কি কাজের ক্ষেত্রে,’ সোনুর উদ্দেশে বলেন সোনা। ‘একজনের স্ত্রী’ ডাকার প্রতিবাদ জানিয়ে সোনা মহাপাত্র বলেছেন, ‘এতেই বোঝা যাচ্ছে পৃথিবী সম্পর্কে আপনার কী মত ও অবস্থান।’

সোনা আরো বলেন, ‘ব্যক্তি না ভেবে অন্যের সঙ্গে সম্পর্কের ওপর ভিত্তি করে আমাকে সংজ্ঞায়িত করা হয়েছে।’ তবে কি সোনু নিগম ‘স্মৃতি হারিয়ে’ তাঁর নাম ‘ভুলে’ গেছেন? আরো অভিযোগ, মি টু আন্দোলনের প্রতি সোনার ‘মত ও সমর্থনকে’ তিনি ‘বমি ও বিস্বাদ’ বলে আখ্যায়িত করেছেন।

নামজাদা শিল্পী হলেও সোনু নিগমের ‘পুরুষ অহংকে’ দুষেছেন সোনা মহাপাত্র।

সোনা মহাপাত্র আরো বলেন, আইন মেনেই যৌন হেনস্তা ও অসদাচরণের অভিযোগ আদালতে প্রমাণ করতে হবে। এর মানে এই নয় যে ভুক্তভোগী অভিযুক্ত ব্যক্তিকে নিয়ে কথা বলা থামিয়ে দেবে।

যা হোক, সোনা মহাপাত্রের অভিযোগ বরাবরই অস্বীকার করে এসেছেন অনু মালিক। গত অক্টোবরে তাঁর আইনজীবী সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে বলেছিলেন, তাঁর মক্কেলের ‘চরিত্রহনন’ করতেই হ্যাশট্যাগ মি টু আন্দোলনকে ঢাল হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে। সূত্র : হিন্দুস্তান টাইমস।