বাংলাদেশে সুষ্ঠু নির্বাচন নিশ্চিত করার পদক্ষেপ নিতে ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে তাগিদ

শুক্রবার, ডিসেম্বর ২১, ২০১৮

ঢাকা: বাংলাদেশে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত গণতান্ত্রিক মূল্যবোধ নিশ্চিত করতে ব্রিটেনের ফরেন অ্যান্ড কমনওয়েলথ অফিস কি কি পদক্ষেপ নিচ্ছে তা জানতে চেয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী জেরেমি হান্টের কাছে চিঠি লিখেছেন ফরেন অ্যাফেয়ার্স কমিটির চেয়ার টম টুগেনধাত-এমপি। গত ১৮ ডিসেম্বর লেখা ওই চিঠিতে নির্বাচনের প্রেক্ষাপটে বেশ কিছু গুরুতর অভিযোগ তুলে ধরেন তিনি। নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠু হওয়ার বিষয়ে ফরেন অ্যান্ড কমনওয়েলথ অফিস যেসব রিপোর্ট পেয়েছে সে বিষয়ে জানতে চান টুগেনধাত। চিঠিতে তিনি লিখেছেন, হিউম্যান রাইটস ওয়াচ নিজেদের রিপোর্টে যেসব গুরুতর অভিযোগ তুলে ধরেছে তাতে আমি উদ্বিগ্ন। এরমধ্যে রয়েছে, বিক্ষোভকারী ও বিরোধীদলীয় নেতাকর্মীদের বারংবার গ্রেপ্তার ও আটকের ঘটনা এবং ক্ষমতাসীন দলের ছাত্র ও যুব শাখা দ্বারা সহিংসতা ও ভীতি প্রদর্শন। রিপোর্টে নিরপেক্ষ ও সুষ্ঠুভাবে কর্মকা- পরিচালনায় বিচার বিভাগ ও নির্বাচন কমিশনের ব্যর্থতার কথা তুলে ধরা হয়েছে। উদাহরণ হিসেবে প্রার্থীদের নিবন্ধন নিয়ে আপত্তির (ডি¯িপউট) কথা বলা হয়েছে। এছাড়া, বিরোধীদলীয় সদস্য ও সমর্থকদের বিরুদ্ধে দৃশ্যত হাজার হাজার রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ফৌজদারি অভিযোগ আনার কথাও উল্লেখ করা হয়েছে।

ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে টম টুগেনধাত লিখেছেন, ‘আমি নিশ্চিত এসব অভিযোগের বিষয়ে আমার সাথে একমত হবেন আপনি। হিউম্যান রাইটস ওয়াচের উত্থাপন করা এসব অভিযোগকে ফরেন অ্যান্ড কমনওয়েলথ অফিস স্বীকৃতি দিয়েছে কিনা, যদি ব্যাখ্যা করেন, তাহলে কৃতজ্ঞ হব। বাংলাদেশে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন নিশ্চিত করতে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় কি কি পদক্ষেপ নিচ্ছে এবং এসব ইস্যুতে শেখ হাসিনা সরকারের কাছে ব্রিটিশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় কিছু তুলে ধরেছে কি না টুগেনধাত তাও জানতে চান ওই চিঠিতে।