এফবিআইকে মিথ্যা বলায় ফেঁসে যাচ্ছেন ট্রাম্প পরামর্শক

বুধবার, ডিসেম্বর ১৯, ২০১৮

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : জনসভায় কিংবা জাতিসংঘের ভাষণে হোক মিথ্যা বলে কয়েকবার হাতে নাতে ধরা খেয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তবে ক্ষমতাসীন হওয়ায় তার বিরুদ্ধে কোনো পদক্ষেপ নেওয়া না হলেও এবার ফেঁসে গেলেন তারই এক কর্মচারী।

জানা গেছে, মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা এফবিআইয়ের কাছে মিথ্যা তথ্য দেওয়ায় শাস্তির মুখে পড়েছেন ট্রাম্প প্রশাসনের সাবেক জাতীয় নিরাপত্তা পরামর্শক মাইকেল ফ্লিন। গতকাল মঙ্গলবার ওয়াশিংটনের একজন বিচারক ফ্লিনের দণ্ডাদেশ বিলম্বিত করে তাকে ট্রাম্প-রাশিয়ার সম্ভাব্য সংঘাতের তদন্তে সম্পূর্ণরূপে সহযোগিতা করার রায় ঘোষণা করেন।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ২০১৭ সালের জানুয়ারিতে ফ্লিন রুশ রাষ্ট্রদূত সের্গেই কিসলাকের সঙ্গে কথা বলেছিলেন। পরে সে বছরই ডিসেম্বরের দিকে তিনি এফবিআইয়ের কাছে রুশ সংযোগ নিয়ে মিথ্যা বলেছিলেন বলে স্বীকার করেন।

এদিকে রায় শোনানোর কিছুক্ষণ আগেই সাবেক সহযোগীর প্রতি সমর্থন প্রকাশ করেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। এক টুইট বার্তায় ট্রাম্প বলেন, আজকের আদালতে জেনারেল মাইকেল ফ্লিনের জন্য শুভকামনা। তিনি কি বলবেন সেটার ব্যাপারে আগ্রহী আমি। রুশ সংযোগসহ তার ওপর অনেক চাপ রয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রে এফবিআইয়ের কাছে মিথ্যা বলার অভিযোগে একজন ব্যক্তির সর্বোচ্চ পাঁচ বছরের কারাদণ্ড হতে পারে। তবে রুশ সংযোগ নিয়ে তদন্ত করা বিশেষ কাউন্সিল রবার্ট মুলার অবশ্য ফ্লিনকে কারাদণ্ড না দেওয়ার জন্য সুপারিশ করেছেন। এদিকে ফ্লিনের ব্যাপারে ছয়মাসের কারাদণ্ড হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানিয়েছে বিশেষজ্ঞরা।