আ’লীগ-বিএনপির সংঘর্ষে আহত ১০

বুধবার, ডিসেম্বর ১৯, ২০১৮

রাজশাহী : গণসংযোগে বাধা দেয়ায় রাজশাহীর বাগমারায় আ’লীগ-বিএনপি’র মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে উভয়পক্ষের ১০ জন নেতাকর্মী আহত হয়েছে।

বুধবার (১৯ ডিসেম্বর) বিকেল সাড়ে ৪টায় এ ঘটনা ঘটে। এ নিয়ে ওই এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।

বিকেলে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতা ও সাবেক সাংসদ আবু হেনা দলীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে উপজেলার গোয়ালকান্দি ইউনিয়নের বাজারে গণসংযোগ করছিলেন। ওই সময় স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও মহিলা লীগের নেতাকর্মীরা বাধা দেয়। জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতাকর্মীরা সেখান থেকে পাশের হামিরকুৎসা বাজারে যান।

সেখানে গনসংযোগ শুরু করলে স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা বাধা দেয়। এতে উভয়পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা ও সংঘর্ষ শুরু হয়। এতে উভয়পক্ষের ১০ নেতাকর্মী আহত হয়েছে। প্রাথমিকভাবে আহতদের নাম ও পরিচয় জানা যায়নি।

সংঘর্ষের এক পর্যায়ে জাতীয় এক্যফ্রন্টের নেতাকর্মীদের হামলার মুখে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা পিছু হটে। এ সময় জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতাকর্মীরা আওয়ামী লীগের নির্বাচনী অফিস ভাঙচুর করে।

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতা ও উপজেলা বিএনপি’র সভাপতি ডিএম জিয়াউর রহমান জিয়া অভিযোগ করেন, তাদের দলের সমর্থিত ধানের শীষের প্রার্থী সাবেক সাংসদ আবু হেনাকে নিয়ে উপজেলার গোয়ালকান্দি বাজারে নির্বাচনী গনসংযোগের সময় আ’লীগের নেতাকর্মীরা তাদের উপর হামলা চালায়। সেখান থেকে তারা ফিরে একই উপজেলার হামিরকুৎসা বাজারে আসলে সেখানেও তাদের দলের নেতাকর্মীদের উপর হামলা চালানো হয়।

তবে স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা এমন অভিযোগ অস্বীকার করেন। তারা জানান, নির্বাচনী প্রচারনার সময় বিএনপির নেতাকর্মীরাই তাদের উপরে হামলা করে ও অফিস ভাঙচুর করে।

বাগমারা থানার ওসি নাছিম আহম্মেদ বলেন, পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি শান্ত করেন। ওই এলাকা থেকে দুই পক্ষকে সরিয়ে দেয়া হয়েছে। পরিস্থিতি পুলিশের অনুকুলে রয়েছে বলে তিনি জানান।