পুলিশ পরিচয়ে উপজেলা চেয়ারম্যানকে তুলে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ

মঙ্গলবার, ডিসেম্বর ১৮, ২০১৮

দিনাজপুর : দিনাজপুরের নবাবগঞ্জে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও দিনাজপুর-৬ আসনের ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী মো: আনোয়ারুল ইসলামের সমর্থনকারী জামায়াত নেতা মো: নুরে আলম সিদ্দিকিকে সাদা পোষাকে পুলিশ পরিচয়ে কালো মাইক্রোতে করে উঠিয়ে নিয়ে গেছে বলে তার পরিবার অভিযোগ করেছেন। তবে উপজেলা চেয়ারম্যানকে গ্রেফতারের বিষয়টি অস্বীকার করেছে পুলিশ।

উপজেলা চেয়ারম্যানের ছেলে মো: গোলাম আজম অভিযোগ করে বলেছেন সাদা পোষাকে কালো মাইক্রোতে করে আমার বাবাকে তুলে নিয়ে গেছে পুলিশ। এছাড়া নবাবগঞ্জ থানার এস, আই কিবরিয়ার মোবাইল নং হতে আমার বাবা আমাকে ফোন করে তাকে গ্রেফতারের বিষয়টি জানিয়ে আমাকে বাসা থেকে তার পরনের কাপড় ও ঔষধ নিয়ে থানায় যেতে বলেন। পরে থানায় গিয়ে যোগাযোগ করা হলে তাকে তুলে নিয়ে আসা বা গ্রেফতার করা হয়নি বলে জানান পুলিশ।

তার ছেলে বলেন, সোমবার সকাল ১১ টা ৩ মিনিটে আমার বাবা উপজেলা চেয়ারম্যান নুরে আলম সিদ্দিকিকে শিমর গ্রামের নিজ বাসা থেকে গ্রেফতার করা হয়।

এদিকে গত রবিবার দিবাগত রাত ১ টায় নবাবগঞ্জ উপজেলার কুশদহ ইউপির হিলিরডাঙ্গা গ্রাম হতে ধানের শীষের নির্বাচনী কর্মী মোঃ আব্দুল আউয়াল মাস্টার ও পল্লী চিকিৎসক ডা. আতিয়ার রহমানকে গ্রেফতার করা হয়।

সোমবার সন্ধ্যা ৬টায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ধানের শীষ প্রতীকের দুই কর্মীকে গ্রেফতারের কথা স্বীকার করে নবাবগঞ্জ থানার ডিউটিরত অফিসার বলেন, থানায় নাশকতার মামলা রয়েছে। তাই এ দু’জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।