শহীদ বুদ্ধিজীবীদের স্বপ্ন পূরণে শেখ হাসিনার বিকল্প নাই

শুক্রবার, ডিসেম্বর ১৪, ২০১৮

শরীয়তপুর প্রতিনিধি : শরীয়তপুর-২ (নড়িয়া-সখিপুর) আসনে আওয়ামীলীগের মনোনীত প্রার্থী ও আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক একেএম এনামুল হক শামীম বলেছেন, বঙ্গবন্ধু মানে বাংলাদেশ, আর শেখ হাসিনা মানে উন্নয়ন। বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও শহীদ বুদ্ধিজীবীদের স্বপ্ন পূরণে কাজ করে যাচ্ছেন।

তাই শেখ হাসিনার বিকল্প নাই। আর সুখ-শান্তি, উন্নয়ন, সমৃদ্ধি, নিরাপদ বাংলাদেশ গড়তে আবারও নৌকায় ভোট দিন। কারণ, নৌকা স্বাধীনতা প্রতীক, নৌকা উন্নয়ন অগ্রযাত্রার প্রতীক।

তাই সার্বিক উন্নয়ন ও অগ্রগতির ধারা অব্যাহত রাখতে জনগণ শেখ হাসিনাকে আবারও নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে চতুর্থবারের মতো প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত করবে।

শুক্রবার সকালে শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস উপলক্ষে (১৪ডিসেম্বর ২০১৮) শরীয়তপুরের সখিপুরের চরসেনসাস ইউনিয়নের বালারবাজারে আওয়ামীলীগ আয়োজিত শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবসের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

সখিপুর থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি হুমায়ুন কবির মোল্যার সভাপতিত্বে ও সাধারন সম্পাদক মানিক সরকারের সঞ্চালনায় সভায় বক্তব্য রাখেন, শহীদ বুদ্ধিজীবী পরিষদের সদস্য ওয়াসেল কবির, জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান এমএ কাইয়ুম, ভেদরগঞ্জ উপজেলার ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আকলিমা আক্তার লিপি, ইউপি চেয়ারম্যান জিতু মিয়া বেপারী, মুজাম্মেল হক মোল্যা, মানিক সরদার, ইউনুস সরকার, মাস্টার জসিম উদ্দিন মাদবর, সামসুজ্জোহা রতন, জেলা পরিষদের সদস্য আনোয়ার বালা, কহিনুর সুলতানা দোলা, আওয়ামীলীগ নেতা মাস্টার ইদ্রিস আলী, অ্যাডভোকেট আউয়াল, কাওসার আহমেদ তকি, এমএ মালেক, অদুদ বালা, আবুল হোসেন বেপারী, সাত্তার হাওলাদার, বসু সরদার, জেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার আলাউদ্দিন আহম্মেদ, যুবলীগ নেতা স্বপন সিকদার, খালেক খালাসী, সখিপুর থানা ছাত্রলীগের সভাপতি রাসেল আহম্মেদ পলাশ, সাংগঠনিক সম্পাদক সোমেল সরদার প্রমূখ।

তিনি আরও বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনা স্বপ্ন দেখে, স্বপ্ন দেখায়, স্বপ্ন বাস্তবায়ন করে। তাই বিজয়ের মাসে বাংলাদেশের জনগণ নৌকায় ভোট দিয়ে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা চতুর্থবারের মতো প্রধানমন্ত্রী করবে।

কোন ষড়যন্ত্র তাকে দাবিয়ে রাখতে পারবে না। উন্নয়ন, অগ্রগতি ও স্বাধীনতা এবং সার্বভৌমত্ব রক্ষার জন্য জনগণের রায় আওয়ামীলীগ আবারও ক্ষমতায় আসবে।

পরে তিনি চরসেনসাস ও আরশিনগর ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকায় গনসংযোগ ও পথসভায় যোগ দেন।