নেচে রুপালি পর্দা কাঁপাবেন এশা

শুক্রবার, ডিসেম্বর ১৪, ২০১৮

বিনোদন ডেস্ক : ২০১২ সালে ‘জান্নাত-২’ দিয়ে বি-টাউনে কাঁপুনি ধরিয়ে দিয়েছিলেন এশা গুপ্ত। সাবেক এই ‘মিস ইন্ডিয়া ইন্টারন্যাশনাল’ দীর্ঘদিন ধরেই আলোচনার বাইরে। তবে অভিনয় থেকে যে দূরে সরে ছিলেন, তা নয়। বেশ কয়েকটি সিনেমায় তাঁকে দেখা গেছে। তবে আলোচনায় ছিলেন না তেমন। শোনা যাচ্ছে, এবার একটি আইটেম গানে দেখা যাবে তাঁকে। সেখানে নেচে রুপালি পর্দা কাঁপাবেন।

রামচরণ পরিচালিত তেলেগু সিনেমা ‘ভিন্ন বিধিয়া রামা’র একটি গানে দেখা যাবে এশা গুপ্তকে। এ ছবির প্রধান চরিত্রে আছেন হালের আবেদনময়ী কিয়ারা আদভানি।

গুঞ্জন রয়েছে, গানটির সুর করেছেন দেবী শ্রী প্রসাদ। এর শুটিং করা হবে অন্নপূর্ণা সেভেন একরস পাব-এ। অবশ্য নির্মাতা এর আগে তাঁর তালিকায় কয়েকজন অভিনেত্রীর নাম রয়েছে বলে জানিয়েছিলেন। এঁদের মধ্যে রয়েছেন ইলিয়েনা ডি’ক্রুজ, ক্যাথরিন তৃষা ও কাজল আগরওয়াল। তবে সাম্প্রতিক খবর, ছবির প্রযোজক চাইছেন এই গানে ‘বেবি’ এশা গুপ্ত ঝড় তুলুন।

এই বিশেষ গানটির শুটিং আজই (১৪ ডিসেম্বর) শুরুর কথা রয়েছে। দ্য নিউ ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে একটি সূত্র বলেছেন, ‘এশা গুপ্ত একটি আইটেম গান করছেন। এই সিনেমার এটিই প্রথম গান, একটি গুরুত্বপূর্ণ দৃশ্যের পর গানটি প্রদর্শিত হবে। তাঁর উপস্থিতি শুধু ভ্যালুই যোগ করবে না, বিনোদিতও করবে।’

‘ভিন্ন বিধিয়া রামা’ অ্যাকশনধর্মী চলচ্চিত্র। চিত্রনাট্য ও পরিচালনা করেছেন বোয়াপতি শ্রীনু। প্রযোজনা করেছে ডিভিভি ডানাইয়া। ডিভিভি এন্টারটেইনমেন্টের ব্যানারে নির্মিত হচ্ছে ছবিটি। আগামী ১০ জানুয়ারি মুক্তির কথা রয়েছে সিনেমাটির। শোনা যাচ্ছে, চলতি মাসের তৃতীয় সপ্তাহেই শেষ হবে এ ছবির শুটিং।

সূত্রটি আরো বলেছেন, ‘ছবির জন্য দুটি গানের শুটিং করা হবে। পাব গানটির পর আরেকটি দ্বৈত গান হবে, যেখানে কিয়ারা আদভানিকে দেখা যাবে। ১৮ থেকে ২২ ডিসেম্বর তেলেঙ্গানা রাজ্যের আদিলাবাদের খানাপুরে শুটিং হবে গানটির।’

২০১২ সালে ‘জান্নাত-২’ দিয়ে বলিউডে অভিষেকের পর ওই বছরই ‘রাজ থ্রিডি’, ‘চক্রব্যূহ’ সিনেমায় অভিনয় করেন এশা গুপ্ত। ২০১৪ সালে ‘হামসকলস’ ও পরের বছর ‘ম্যায় রাঁহু ইয়া না রাঁহু’ এবং ২০১৬ সালে ‘রুস্তম’ সিনেমায় অভিনয় করেন এশা।

২০১৬ সালে তামিল সিনেমা ‘দেবী’ ও তেলেগু সিনেমা ‘অভিনেত্রী’তে অতিথি চরিত্রে দেখা যায় আবেদনময়ী এ অভিনয়শিল্পীকে। গত বছর তেলেগু সিনেমা ‘বীরেবারু’র একটি আইটেম গানেও দেখা যায় এশাকে। সূত্র : ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস টাইমস।