স‌চিবাল‌য়ের সাম‌নে বাম‌ জোটের বিক্ষোভ, পুলিশের বাধা

রবিবার, অক্টোবর ১৪, ২০১৮

ঢাকা: পুলিশের কঠোর ব্যারিকেড ভেঙে সচিবালয়ের গেটের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে বাম গণতান্ত্রিক জোটের নেতাকর্মীরা। এ ঘটনায় জোটের কয়েকজন সামান্য আহত হলেও কেউ গ্রেফতার হননি।

সরকারের স্বৈরতান্ত্রিক দুঃশাসন-জুলুম-লুটপাটের প্রতিবাদে, বর্তমান জাতীয় সংসদ ভেঙে দিয়ে নির্বাচনকালীন নিরপেক্ষ তদারকি সরকারের অধীনে অবাধ-নিরপেক্ষ-গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের দাবিতে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে রবিবার (১৪ অক্টোবর) দুপুর ১২টার দিকে সমাবেশ শুরু করে।

বাম গণতান্ত্রিক জোটের সমন্বয়ক বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক, সিপিবি’র সাধারণ সম্পাদক মো. শাহ আলম, বাসদের বজলুর রশীদ ফিরোজ, গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক জোনায়েদ সাকি, ইউনাইটেড কমিউনিস্ট লীগের সাধারণ সম্পাদক মোশাররফ হোসেন নান্নু, গণতান্ত্রিক বিপ্লবী পার্টির সাধারণ সম্পাদক মোশরেফা মিশু ও সমাজতান্ত্রিক আন্দোলনের আহ্বায়ক হামিদুল হক প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

সমাবেশ শেষে দুপুর ১টার দিকে জোটের পক্ষ থেকে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে থেকে মিছিল নিয়ে পল্টন হয়ে সচিবালয়ের সামনে আসে। এসময় আইন শৃঙ্খলাবাহিনীর সদস্যদের পক্ষ থেকে দু’জায়গায় ব্যারিকেড দেয়া। তবে বিক্ষুদ্ধ নেতাকর্মীরা মিছিল নিয়ে ব্যারিকেড ভাঙতে আসেল পুলিশ নেতাকর্মীদের বাধা দেয়। এত বাম জোটের কয়েকজন নেতাকর্মী আহত হন।

তবে জোটের নেতাকর্মীরা আরও সামনের দিকে যেতে থাকে। এসময় বেশ কিছুক্ষণ চলে পুলিশের সাথে বাম জোটের নেতাকর্মীদের ধাক্কাধাকি। তারা সচিবালয়ের ৫নং গেটের সামনে থাকা পুলিশের ব্যারিকেড ভেঙে সামনে দিকে অগ্রসর হলে কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ ছুটে যান। তাদের ফিরিয়ে ৫ নং গেটের সামনে সমবেত করেন।

সেখানে এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশে বাম জোটের সমন্বয়ক সাইফুল হক নতুন কর্মসূচি দেন। কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে আগামী ২৩ অক্টোবর সারা দেশে গণঅবস্থান কর্মসূচি করা হবে এবং ২৯ অক্টোবর রাষ্ট্রপতির কাছে অবাধ-নিরপেক্ষ-গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের দাবিতে স্মারকলিপি প্রদান।