মত্ত অবস্থায় বিমানের মধ্যে মূত্রত্যাগ!

শনিবার, অক্টোবর ১৩, ২০১৮

বিনোদন ডেস্ক : সিনেমার পাশাপাশি অলোকনাথের সঙ্গে মেগা সিরিয়াল ও সিনেমা ‘হাম সাথ সাথ হ্যায়’, ‘পরদেশ’, ‘কভি খুশি কভি গম’-এর মত একাধিক ব্লকবাস্টার সিনেমায় অলোকনাথের সঙ্গে স্ক্রিন শেয়ার করেছেন। এবার রুপোলি পর্দার সেই ‘সংস্কারি’ অভিনেতার বিরুদ্ধে মুখ খুললেন হিমানি।

একটি সংবাদমাধ্যমের সাক্ষাতকারে হিমানি বলেন, অলোকনাথকে ‘সংস্কারি’ অভিনেতা বলার পিছনে এক শ্রেণীর সংবাদমাধ্যমের হাত রয়েছে। সংবাদমাধ্যমই তাঁকে ‘সংস্কারি’ আখ্যা দিয়েছে। কিন্তু, অভিনয়ের পাশাপাশি অলোকনাথের অন্য একটি রূপও রয়েছে। এবং তাঁর সেই ইমেজে যে অনেকেই খুশি নন, সে কথা ইন্ডাস্ট্রির প্রায় প্রত্যেকেরই জানা। অলোকনাথের সঙ্গে কাজ করতে অসুবিধা হচ্ছে, অনেকেই তাঁকে এমন কথা জানিয়েছেন বহুবার। শুধু তাই নয়, অলোকনাথের সঙ্গে কাজ করতে অসুবিধা হচ্ছে বলে তাঁকে জানিয়েছিলেন এক প্রয়াত অভিনেত্রীও। সবকিছু মিলিয়ে অলোকনাথের বিরুদ্ধে এবার প্রকাশ্যেই মুখ খুললেন হিমানি।

তিনি আরও বলেন, মত্ত অবস্থায় একবার বিমানে দাঁড়িয়ে মূত্রত্যাগ করতেও দেখা যায় অলোকনাথকে। আর এরপরই বিমান থেকে জোর করে নামিয়ে দেওয়া হয় তাঁকে। ওই সময় বিমানের একধিক কর্মীর সঙ্গে অত্যন্ত খারাপ ব্যবহার করেছিলেন অলোকনাথ। শুধু তাই নয়, দুবাইতে আইটিএ এওয়ার্ডসের সময় মত্ত অবস্থায় সবার সঙ্গে অত্যন্ত খারাপ ব্যবহার করতে শুরু করেন অলোকনাথ। যা নিয়ে অলোকনাথের স্ত্রীও চিন্তায় পড়ে যান। ফলে ইন্ডাস্ট্রিতে এমন অনেক মানুষ রয়েছেন, যাঁরা সহঅভিনেতাদের সঙ্গে অত্যন্ত খারাপ ব্যবহার করেন। অনেক সময় লালসার শিকারও হন। কিন্তু, এবার সময় এসেছে, অপমানের বিরুদ্ধে মুখ খোলার। এমনও মনে করেন হিমানি শিবপুরি।

এদিকে সম্প্রতি বলিউডের বর্ষীয়ান অভিনেতা আসরানি সম্প্রতি ‘মি টু’ নিয়ে মুখ খোলেন। সংবাদ সংস্থা এএনআই-কে দেওয়া এক সাক্ষাতকারে তিনি বলেন, ‘আমি মহিলাদের সম্মান করি। প্রত্যেকের সেটাই করা উচিত। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে জনপ্রিয়তার লোভে এসব ছড়ানো হচ্ছে। সেই সঙ্গে সিনেমার প্রমোশনের জন্যও অনেক সময় অনেকরকম কথা বলা হচ্ছে। সবকিছুই বাজে এবং মিথ্যে কথা। মি টু ঝড় নিয়ে যাঁরা একের পর এক কথা বলছেন কিংবা দাবি করছেন, তার ৯০ শতাংশ মিথ্যে।’ বিভিন্ন পত্র পত্রিকায় কথা বিক্রির জন্য এবং জনপ্রিয়তা পাওয়ার জন্যই এসব মন্তব্য করা হচ্ছে বলেও দাবি করেন বলিউডের এই বর্ষীয়ান অভিনেতা।